রেনু বেগমকে পিটিয়ে হত্যার মামলা যাচ্ছে জজ আদালতে

তাসলিমা বেগম রেনু
রাজধানীর উত্তর বাড্ডায় ছেলেধরা সন্দেহে তাসলিমা বেগম রেনুকে পিটিয়ে হত্যার মামলা বিচারের জন্য ঢাকার মহানগর দায়রা জজ আদালতে চলে যাচ্ছে।

এজন্য ঢাকার মহানগর হাকিম মামুনুর রশীদ মামলাটির নথিপত্র সোমবার মুখ্য মহানগর হাকিমের কাছে পাঠিয়ে দেন। 

নিয়ম অনুযায়ী এখন মুখ্য মহানগর হাকিম পরবর্তী বিচার কাজের জন্য মামলাটি ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতে বদলির আদেশ দেবেন।

তাসলিমা বেগম রেনুকে পিটিয়ে হত্যার মামলায় ১৫ জনকে দায়ী করে দেওয়া অভিযোগপত্র ২ ডিসেম্বর আদালত গ্রহণ করেন।

আসামিরা হলেন- ইব্রাহিম ওরফে হৃদয় মোল্লা, রিয়া বেগম ময়না, আবুল কালাম আজাদ, কামাল হোসেন, মো. শাহিন, বাচ্চু মিয়া, বাপ্পি ওরফে শহিদুল ইসলাম, মুরাদ মিয়া, সোহেল রানা, আসাদুল ইসলাম, বেল্লাল মোল্লা, রাজু ওরফে রুম্মান হোসেন ও মহিউদ্দিন।

জাফর ও ওয়াসিম অপ্রাপ্তবয়স্ক হওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে দোষীপত্র দেওয়া হয়েছে। ওয়াসিম ছাড়া হৃদয় ও রিয়া আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

২০১৯ সালের ২০ জুলাই রাজধানীর বাড্ডার একটি স্কুলে সন্তানদের ভর্তির বিষয়ে খোঁজ নিতে গিয়ে ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনির শিকার হয়ে মারা যান রেনু। এ ঘটনায় অজ্ঞাত ৫০০ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেন রেনুর ভাগ্নে সৈয়দ নাসির উদ্দিন টিটু।