শাহীন রেজা নূরের মরদেহ দেশে আসছে বুধবার

শাহীন রেজা নূর, ফাইল ছবি
শহীদ বৃদ্ধিজীবী সিরাজউদ্দীন হোসেনের ছেলে সাংবাদিক শাহীন রেজা নূরের মরদেহ কানাডা থেকে দেশে আসছে আগামী বুধবার (৩ মার্চ)।

শাহীন রেজা নূরের ভাই তৌহিদ রেজা নূর বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, ওইদিন ভোর ৫টা ২৫ মিনিটে তার মরদেহ দেশে এসে পৌঁছবে।

ক্যান্সারে আক্রান্ত এই শহীদ-সন্তান কানাডার ভ্যাংকুভারের একটি হাসপাতালে গত ১৩ ফেব্রুয়ারি মারা যান।

তৌহিদ রোজা নূর বলেন, “শাহীন ভাইয়ের মরদেহ দেশে আসার পর তাকে বহনের জন্য গাড়ি বহর বা অন্যান্য যেসব সুবিধাদির প্রয়োজন হবে, তা সরকারের পক্ষ থেকে দেওয়া হবে বলে আমাদের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে জানানো হয়েছে।

“প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সদয় সম্মতি ও নির্দেশে সদ্য প্রয়াত শাহীন ভাইকে মাতৃভূমিতে আনা সম্ভব হচ্ছে। আমরা প্রধানমন্ত্রী ও সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।”

তিনি জানান, বিমানবন্দর থেকে প্রথমেই শাহীন রেজা নূরেরমরদেহ সরাসরি মোহাম্মদপুরের আসাদ এভিনিউর তার পৈতৃক নিবাসে আনা হবে।

“সেখানে সকাল ৭টা থেকে ৮টা ৪৫ মিনিট পর্যন্ত শ্রদ্ধা নিবেদনের পর সকাল ৯টায় বাসা সংলগ্ন মসজিদে প্রথম জানাজা হবে।”

এরপর সকাল সাড়ে ১০টা থেকে সাড়ে ১২টা পর্যন্ত সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে তার মরদেহ রাখা হবে।

বাদ জোহর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় মসজিদে শাহীন রেজা নূরের দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর বিকাল ৩টায় মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধ প্রাঙ্গণে তৃতীয় জানাজা শেষে শহীদ বুদ্ধিজীবী সমাধিক্ষেত্রে তাকে সমাহিত করা হবে।

শাহীন রেজা নূরের বাবা সিরাজুদ্দীন হোসেন ছিলেন দৈনিক ইত্তেফাকের বার্তা ও কার্যনির্বাহী সম্পাদক। তার আট সন্তানের মধ্যে দ্বিতীয় শাহীন রেজা নূরের জন্ম ১৯৫৫ সালে মাগুরা জেলার শালিখা থানার শরশুনা গ্রামে।

১৯৭১ সালের ১০ ডিসেম্বর বুদ্ধিজীবী নিধনযজ্ঞ শুরু হলে তার নির্মম শিকার হন সাংবাদিক সিরাজউদ্দীন হোসেন।

যুদ্ধাপরাধীর বিচার দাবির আন্দোলনে থেকে শহীদ সন্তানদের নিয়ে গড়ে ওঠা সংগঠন ‘প্রজন্ম একাত্তর’র সভাপতি শাহীন রেজা নূর।

একাত্তরের যুদ্ধাপরাধের বিচার শুরু হলে জামায়াতের সেক্রেটারি জেনারেল আলী আহসান মো. মুজাহিদের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে সাক্ষ্য দেওয়ার পর হামলার ‍মুখেও পড়েছিলেন শাহীন রেজা।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাংলায় স্নাতক ডিগ্রি নেওয়ার পর জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজিতে স্নাতকোত্তর করেন শাহীন রেজা।

তিনি ১৯৭২ সালে ঢাকা বেতার কেন্দ্রে বার্তা বিভাগে অনুলিপিকারের চাকরি নিয়ে কর্মজীবন শুরু করেন, পরে অনুবাদকের ভূমিকাও পালন করেন।

১৯৭৩ সালের নভেম্বর মাসে দৈনিক ইত্তেফাকের শিক্ষানবিশ সহ-সম্পাদক পদে যোগ দেন শাহীন রেজা। একটানা ১৬ বছর ইত্তেফাকে সাংবাদিকতা করার পর ১৯৮৮ সালে তিনি কানাডা যান। সেখানে মন্ট্রিয়ালে থেকে বাংলা সাপ্তাহিক প্রবাস বাংলা প্রকাশের সঙ্গে সম্পৃক্ত হন।

কানাডা থেকে দেশে ফিরে আবার দৈনিক ইত্তেফাকে যোগ দেন।

বাংলাদেশ টেলিভিশনের বার্তা বিভাগে অনুবাদক হিসেবে কিছুকাল কাজ করেছেন তিনি। জাতীয় রাজনীতি, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক বিষয়ের উপরও প্রচুর লেখালেখিও করেন।