লঘুচাপ পরিণত স্থল নিম্নচাপে, বৃষ্টির প্রবণতা কমবে

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় বৃহস্পতিবার দুপুরে বৃষ্টির মধ্যে চলার সময় ছাতা হাতে ভেজার হাত থেকে বাঁচার চেষ্টায় রিকশাযাত্রীরা। ছবি: মাহমুদ জামান অভি
বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট লঘুচাপটি ঘণীভূত হয়ে স্থল নিম্নচাপের আকারে বাংলাদেশের খুলনা-সাতক্ষীরা অঞ্চল ও তৎসংলগ্ন পশ্চিমবঙ্গ এলাকায় অবস্থান করছে।

জ্যেষ্ঠ আবহাওয়াবিদ আব্দুর রহমান খান জানিয়েছে, টানা কয়েক দিনের বৈরি আবহাওয়ার পর শুক্রবার পরিস্থিতির উন্নতি হচ্ছে। বিকালের দিকে সমুদ্রবন্দরে জারি করা স্থানীয় সতর্ক সংকেতও নামিয়ে নেওয়া হতে পারে।

দেশের বিভিন্ন স্থানে গত কয়েক দিন ভারি বর্ষণের যে প্রবণতা দেখা গেছে, এখন তা কমে আসবে বলে জানান এ আবহাওয়াবিদ।

গত ২৪ ঘণ্টায় ফেনীতে দেশের সর্বোচ্চ ২৫৮ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করেছে আবহাওয়া অফিস। এ সময় ঢাকায় ৩২ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড হয়।

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট লঘুচাপটি বুধবার সুষ্পষ্ট লঘুচাপের রূপ নিলে উপকলীয় এলাকায় ঝড়ো হাওয়ার আশঙ্কায় ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়।

বৃহস্পতিবার লঘুচাপটি স্থলভাগে উঠে আসে স্থল নিম্নচাপের রূপ নিয়ে। শুক্রবার সকালে সতর্ক সংকেত বহাল রাখা হলেও পরিস্থিতির উন্নতি হওয়ায় বিকালে তা নামিয়ে নেওয়া হতে পারে বলে জানান আবহাওয়াবিদ আব্দুর রহমান খান।

লঘুচাপ কাটেনি, ৩ নম্বর সঙ্কেতই থাকছে  

তিনি বলেন, মৌসুমি বায়ু সক্রিয় থাকায় শুক্রবারও থেমে থেমে বৃষ্টি থাকবে অনেক এলাকায়। তবে বৃষ্টির পরিমাণ গত কয়েক দিনের চেয়ে কম হবে।

২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে- খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় এবং রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝড়ো হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সাথে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে অতি ভারি বর্ষণ হতে পারে।