‘টিভি সিরিয়াল’ দেখে এটিএম বুথ লুট

ওমানে শ্রমিক হিসেবে কাজ করতেন শামীম আহাম্মেদ। সেখানে খুব একটা সুবিধা করতে না পারায় দেশে ফিরে আসেন। তাড়াতাড়ি বড় লোক হওয়ার আশায় এটিএম বুথ থেকে টাকা লুটের পরিকল্পনা নিয়ে মাঠে নামেন।

ভারতীয় টিভি সিরিয়াল ‘সিআইডি’ দেখেই এ পরিকল্পনা সাজান মাঝবয়সী এ ব্যক্তি। সে অনুযায়ী সিলেটের ওসমানীনগরে ইউসিবি ব্যাংকের এটিএম বুথ ভেঙ্গে ২৪ লাখের বেশি টাকা লুটও করেন। তবে শেষ রক্ষা হয়নি বলে জানিয়েছেন ডিবির যুগ্ন কমিশনার হারুন অর রশিদ।

ডাকাতির ১০ দিন পর শামীমসহ তিন জনকে গ্রেপ্তার ও ১০ লাখ টাকা উদ্ধারের কথা জানিয়েছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

বুধবার ডিবি কর্মকর্তা হারুন জানান, ঢাকা ও হবিগঞ্জ থেকে মঙ্গলবার রাতে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

শামীম ছাড়া গ্রেপ্তার অপর দুই জন হচ্ছেন, নূর মোহাম্মদ সেবুল ও মোঃ আব্দুল হালিম।

বুধবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে গ্রেপ্তারের তথ্য দিয়ে ডিবির ঊর্ধ্বতন এই কর্মকর্তা বলেন, “ডাকাত দলটিকে শনাক্ত ও গ্রেপ্তারে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের সাইবার ইউনিটের কাছে সহায়তা চায় সিলেট পুলিশ।

“ তাদের অনুরোধে তদন্ত করতে গিয়ে শামীমসহ তিনজনের অবস্থান শনাক্ত করা হয়। এরপর চার জনের দলের তিন জনকে গ্রেপ্তার করি।” 

শামীম ওমানে শ্রমিক হিসেবে কাজ করত উল্লেখ করে তিনি বলেন, প্রযুক্তি বিষয়ে তার ভালো ধারনাও রয়েছে।

সিলেটে এটিএম বুথের ২৪ লাখ টাকা লুট  

চট্টগ্রামে নিরাপত্তা কর্মীর সাহসিকতায় এটিএম বুথ ‘রক্ষা’, গ্রেপ্তার ৩  

“অতি অল্প সময়ের মধ্যে বড় লোক হওয়ার স্বপ্ন তাকে সব সময় তাড়া করত। এ থেকে তারা এটিএম বুথ ভেঙ্গে টাকা লুটের পরিকল্পনা করে।”

শামীম নিয়মিত ভারতীয় টিভি সিরিয়াল দেখত বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশকে জানিয়েছে।

ডিবি কর্মকর্তা হারুন জানান, এই সিরিয়ালে এটিএম বুথ ভাঙ্গার যে কৌশল সেটা সিলেটে ওসমানী নগর থানা এলাকায় ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের এটিএম মেশিনে প্রয়োগ করে।

গত ১২ সেপ্টেম্বর ভোর রাত সোয়া তিনটার দিকে ওসমানীনগরের ওই বুথে ডাকাতি হয়। এসময় ভেতর থেকে বুথ বন্ধ ছিল।

চার জনের ডাকাতদল দরজায় ধাক্কা দিলে নিরাপত্তা কর্মী খুলে দেওয়ার সঙ্গে তাকে জিম্মি করে ফেলা হয়। পরে ডাকাতদল কালো স্প্রে দিয়ে সিসি ক্যামেরা ঢেকে দেয়।

পুলিশ কর্মকর্তা হারুন জানান, স্প্রে দিয়ে ঢেকে দেওয়া হলেও তাদের ঢোকার এবং দারোযানকে জিম্মি করার ফুটেজ তারা পেয়ে যান।

এক সময় শ্রমিক হিসাবে ওমানে ছিলেন শামীম। সেখানে খুব একটা ভালো না করায় সে দেশে ফিরে ডাকাতির এ ঘটনা ঘটায়, যোগ করেন হারুন।  

তিনি বলেন, “নকল এটিএম কার্ড বানিয়ে বুথ থেকে টাকা তুলে নেওয়ার ঘটনা ইতিপূর্ব বেশ কয়েকটি ঘটলেও শাবল দিয়ে বুধ ভেঙ্গে টাকা লুটের ঘটনা বাংলাদেশের ইতিহাসে এটাই প্রথম।”