গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা: বিজ্ঞান অনুষদে উপস্থিতি ‘৯০ শতাংশ’

মহামারীর সময়ে শিক্ষার্থীদের ভোগান্তি আর ঝুঁকি কমাতে প্রথমবারের মত দেশের বিশটি বিশ্ববিদ্যালয়ে একযোগে শুরু হয়েছে গুচ্ছ পদ্ধতির ভর্তি পরীক্ষা।

প্রথম দিন রোববার সারা দেশের ২৭টি কেন্দ্রে বিজ্ঞান বিভাগের পরীক্ষা হয়। এ বিভাগে ভর্তির জন্য আবেদন করেছিল ১ লাখ ৩১ হাজার ৯০৫ জন পরীক্ষার্থী।

তাদের মধ্যে ৯০ শতাংশের বেশি শিক্ষার্থী পরীক্ষায় উপস্থিত ছিল বলে জানিয়েছেন গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার টেকনিক্যাল কমিটির আহ্বায়ক ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মুনাজ আহমদ নূর।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে তিনি বলেন, “আমাদের সব রিপোর্ট পেতে পেতে আগামীকাল হয়ে যাবে। তখন বলা যাবে আসলেই কতজন উপস্থিত ছিল। কেউ নকল করেছে, বহিষ্কার হয়েছে- এমন কিছু হলে তো সে খবর চলে আসত।”

এক ঘণ্টার এই ভর্তি পরীক্ষায় পরীক্ষার্থীদের ১০০ নম্বরের এমসিকিউ প্রশ্নের উত্তর দিতে হয়েছে। এ পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে প্রকাশিত হবে মেধাতালিকা।

গুচ্ছে থাকা বিশ্ববিদ্যালয়গুলো সেই মেধাতালিকা থেকে নিজেদের শর্ত পূরণ সাপেক্ষে ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক প্রথম বর্ষে শিক্ষার্থী ভর্তি করবে।

আগামী ২৪ অক্টোবর মানবিক বিভাগ এবং ১ নভেম্বর বাণিজ্য বিভাগের ভর্তি পরীক্ষা হবে। দুই দিনই পরীক্ষা হবে বেলা ১২টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত।

গুচ্ছভুক্ত এসব বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিতে সব মিলিয়ে ৩ লাখ ৬১ হাজার ৪০৬ জন শিক্ষার্থী প্রাথমিকভাবে আবেদন করেন।

এর মধ্যে মানবিক বিভাগে ১ লাখ ৭ হাজার ৯৩৩ এবং বাণিজ্য বিভাগে ৫৮ হাজার ৬৩২ জন শিক্ষার্থী আবেদন করেছেন।

গুচ্ছভুক্ত ২০টি বিশ্ববিদ্যালয় হল- জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়, রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয়, শেখ হাসিনা বিশ্ববিদ্যালয়, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়।