ডিএনসিসির গাড়ি চালকদেরই চালাতে হবে: মেয়র আতিক

উত্তর সিটি করপোরেশনের এই ময়লার গাড়ির চাপায় নিহত হন আহসান কবীর খান।
বাইরের একজনের চালনায় সড়কে একজনের মৃত্যুর প্রেক্ষাপটে এখন থেকে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে কেবল চালকদের মাধ্যমেই গাড়ি চালাতে বলেছেন মেয়র আতিকুল ইসলাম। 

মঙ্গলববার ডিএনসিসির নগর ভবনে সিটি করপোরেশনের গাড়ি চালকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় তিনি বলেন, “যার গাড়ি চালানোর দায়িত্ব, তাকেই গাড়ি চালাতে হবে।”

ডিএনসিসির প্রতিটি গাড়িতে জিপিএস ট্র্যাকার লাগানো হবে জানিয়ে তিনি বলেন, “প্রতিটি গাড়ি কখন বের হয়, কোথায় যায় সবকিছুই রেকর্ড করা হবে। নিজের কাজ নিজেকেই করতে হবে, একজনের কাজ অন্যকে দিয়ে করানোর প্রমাণ পাওয়া গেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে, প্রয়োজনে গোল্ডেন হ্যান্ডশেক দেওয়া হবে।”

গত বৃহস্পতিবার পান্থপথে বসুন্ধরা শপিং কমপ্লেক্সের সামনে ডিএনসিসির ময়লার গাড়ির ধাক্কায় নিহত হন মোটরসাইকেল আরোহী সাবেক সংবাদকর্মী আহসান কবীর খান।

ওই গাড়িটি চালাচ্ছিলেন মো. হানিফ নামের একজন মেকানিক, যাকে শুক্রবার রাতে চাঁদপুর থেকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। হানিফ আদৌ সিটি করপোরেশনের কর্মচারী ছিলেন না। তবে সিটি করপোরেশনের গাড়ি চালাতেন তিনি।

পান্থপথে মৃত্যু: উত্তর সিটির সেই ময়লার গাড়ি চালাচ্ছিলেন একজন ‘মেকানিক’  

সিটি করপোরেশনে কিছু চালক নিয়োগ হচ্ছে জানিয়ে নিয়োগে সঙ্কটের কথাও তুলে ধরেন মেয়র আতিক।

তিনি বলেন, চালক নিয়োগ নিয়ে সিটি করপোরেশন বিধিমালা এবং স্থানীয় সরকার আইনে দুই রকম কথা বলা আছে। এ কারণে চালক নিয়োগ করা যাচ্ছে না।

“সিটি করপোরেশনের বিধিতে আছে আউটসোর্সিংয়ের মাধ্যমে লোক নিতে হবে। আবার স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় বলছে, স্থায়ী নিয়োগ দিতে হবে। বিধিটা কে বানিয়েছে, সরকার। এটা সরকারকেই ঠিক করতে হবে।”