বইমেলায় প্রবেশে দেখাতে হবে সনদ, বসছে টিকা দেওয়ার বুথ

নতুন করে মহামারীর বিস্তারে পিছিয়ে দেওয়া বইমেলা দুই সপ্তাহ পর শুরুর প্রস্তুতি চলছে; তবে কোভিড সংক্রমণ রোধে মেলায় ঢুকতে ক্রেতা-দর্শনার্থী ও বিক্রেতাদের দেখাতে হবে টিকার সনদ।

আর বইমেলা সংশ্লিষ্ট সবাইকে টিকার আওতায় আনতে বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে বসানো হচ্ছে টিকা গ্রহণের বিশেষ বুথ।

শুক্রবার বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি মুহম্মদ নূরুল হুদা বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে এসব তথ্য জানান।

এদিন সকালে ১০০ জনের বেশি জনসমাগমে নতুন করে সরকারের বিধিনিষেধের ঘোষণা দেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

এমন প্রেক্ষাপটে বইমেলা আয়োজনের বিষয়টি আবার সামনে এলে আয়োজক কর্তৃপক্ষ বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক মেলায় ঢুকতে টিকা সনদ দেখানো এবং বুথ বসানোর কথা জানান।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ, অফিসে লাগবে টিকা সনদ

মহামারী: দুই সপ্তাহ পেছাল একুশে বইমেলা  

করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতির কারণে এবার বইমেলা দুই সপ্তাহ পেছানো হয়েছে। ১৫ ফেব্রুয়ারি থেকে বইমেলা শুরুর প্রস্তুতি নিচ্ছে বাংলা একাডেমি।

শুক্রবার সকালে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, সামাজিক অনুষ্ঠানগুলোয় একশ’র বেশি লোক যেতে পারবে না। কিন্তু স্টেডিয়ামের বিষয় আসে সেখানে তো আর একশ জনের বেশি লোক যাবে না, তা বলা যাবে না।

“খেলা তো স্টেডিয়ামে হয়। সেখানেও টিকা সনদ নিয়ে আর টেস্টের সনদ নিয়ে যেতে হবে।এর বাইরে যাওয়া সম্ভব নয়।“

এটা সর্বক্ষেত্রে প্রযোজ্য, বইমেলার ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য হবে জানিয়ে তিনি বলেন, স্টেডিয়ামে ঢুকতে হলেও টিকার সনদ এবং টেস্টের সনদ দেখিয়ে ঢুকতে হবে।

তিনি বলেন, সংক্রমণের হার বেড়ে যাওয়ায় বইমেলা পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে। সেটা ১৫ ফেব্রুয়ারি হবে। একটি বিশেষ নির্দেশনা রয়েছে বইমেলা কীভাবে হবে।

অমর একুশে গ্রন্থমেলা সামনে রেখে ঢাকার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে শুরু হয়েছে স্টল তৈরির কাজ। ছবি: কাজী সালাহউদ্দিন রাজু

“আমাদের উদ্দেশ্য হলো পৃথিবী যেভাবে চলছে, যেভাবে বিধিনিষেধগুলো দিচ্ছে আমরাও তার বাইরে না।“

করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রনের বিস্তারের মধ্যে শুক্রবার দৈনিক শনাক্ত রোগীর সংখ্যা আর শনাক্তের হার আরও বেড়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, শুক্রবার সকাল পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় সোয়া ৪০ হাজারের বেশি পরীক্ষা করে ১১ হাজার ৪৩৪ জনের মধ্যে সংক্রমণ ধরা পড়েছে; এই সময়ে মৃত্যু হয়েছে ১২ জনের।

শুক্রবার বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক বলেন, এবার বইমেলায় আসতে অবশ্যই টিকার সনদ দেখাতে হবে সবাইকে। বইমেলায় যারা স্টল নিচ্ছেন, প্রকাশক, বই বিক্রেতাসহ সবাইকে করোনাভাইরাসের টিকার সনদ দেখাতে হবে।

বইমেলার আগে বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে টিকার বুথ বসানো হবে জানিয়ে তিনি বলেন, “বুথ বসানোর জন্য আমরা স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে চিঠি পাঠিয়েছি। যারা এখনও টিকা নেননি, তারা এখান থেকে টিকা নিতে পারবেন।"