সিডিসি গ্রুপ থেকে ৩ কোটি ডলার ঋণ পেল প্রাইম ব্যাংক

যুক্তরাজ্যের সিডিসি গ্রুপের কাছ থেকে ৩ কোটি ডলার ঋণ পেয়েছে বাংলাদেশের বেসরকারি খাতের প্রাইম ব্যাংক লিমিটেড।

বুধবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে প্রাইম ব্যাংক বলেছে, যুক্তরাজ্যের ডেভেলপমেন্ট ফাইন্যান্স ইনস্টিটিউশন এবং ইমপেক্ট ইনভেস্টর সিডিসি গ্রুপ থেকে এই ‘ট্রেড ফাইন্যান্স লোন’ পাওয়ায় কর্পোরেট গ্রাহকদের মার্কিন ডলারে আরও বেশি তহবিল যোগাতে পারবে তারা।

 “এই সুবিধার ফলে দেশের গুরুত্বপূর্ণ অর্থনৈতিক খাত- যেমন উৎপাদন, তৈরি পোশাক, খাদ্য এবং কৃষিতে প্রতিবছর অতিরিক্ত ৬০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বাণিজ্য হবে বলে আশা করা যাচ্ছে।”

পাশাপাশি প্রাইম ব্যাংকের মাধ্যমে আমদানি ও রপ্তানির লেনদেনও আরও গতিশীল হবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে আশা প্রকাশ করা হয়েছে।

বাংলাদেশে সিডিসি গ্রুপের কান্ট্রি ডিরেক্টর এম রেহান রশিদ বলেন, “প্রাইম ব্যাংকের সাথে সিডিসি গ্রুপের এই অংশীদারিত্ব বাংলাদেশের আর্থিক অন্তর্ভুক্তিকরণ বৃদ্ধিতে এবং মার্কেটে ফান্ডিংয়ের ঘাটতি পূরণে সহায়তা দেবে। বাংলাদেশের অন্যতম প্রধান আর্থিক প্রতিষ্ঠানের সাথে থাকতে পেরে আমরা আনন্দিত। এই পার্টনারশিপ স্থানীয় ব্যাবসায়ীদের মূলধন সহায়তা, ব্যবসা বৃদ্ধি এবং অর্থনীতির গতি তরান্বিত করবে।”

প্রাইম ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও হাসান ও রশীদ বলেন, “সিডিসির সাথে এই পার্টনারশিপ সত্যিই একটি সময়োপযোগী উদ্যোগ। এই সহযোগিতা কোভিড পরবর্তী ব্যবসায়িক পরিবেশে কর্পোরেট এবং এসএমই ক্লায়েন্টদের ব্যবসায়িক চাহিদা মেটাতে প্রাইম ব্যাংককে সহায়তা করবে। উপরন্তু, এই পার্টনারশিপ আমাদের আন্তর্জাতিক বাণিজ্যে তারল্য বৃদ্ধি এবং ইন্টারন্যাশনাল বেস্ট প্র্যাকটিসগুলির প্রণয়নের মাধ্যমে আমাদের ব্যাংকের কর্পোরেট গর্ভনেন্সকে আরও সুদৃঢ় করবে।"

বাংলাদেশে ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট ডিকসন বলেন, “যুক্তরাজ্যের দ্বিপক্ষীয়  বিনিয়োগ সংস্থা সিডিসির এই নতুন ট্রেড ফাইন্যান্স লোন গুরুত্বপূর্ণ অর্থনৈতিক খাতগুলোতে প্রয়োজনীয় সহায়তা দেওয়ার মাধ্যমে বাংলাদেশের জিডিপি বৃদ্ধিতে সহায়তা করবে। এটা বাংলাদেশের অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারকে ত্বরান্বিত করার ক্ষেত্রে যুক্তরাজ্যের অঙ্গীকারের আরও একটি প্রমাণ। আমি সিডিসি এবং প্রাইম ব্যাংকের এই পার্টনারশিপের সাফল্য কামনা করছি।”