করোনাভাইরাস: চট্টগ্রামে ২৪ ঘণ্টায় ছয় মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২৭১

ফাইল ছবি
চট্টগ্রামে একদিনে আরো ২৭১ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন সেখ ফজলে রাব্বি জানান, বুধবার চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারের সাতটি ল্যাবে ১৩৭৩টি নমুনা পরীক্ষায় এ ফল আসে।

সব মিলিয়ে চট্টগ্রাম জেলায় কোভিড-১৯ রোগীর সংখ্যা বেড়ে হল ৯১২৩ জন। এরমধ্যে শেষ ১২ দিনে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৩০২৭ জন।

শেষ ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রাম জেলায় ছয়জন কোভিড-১৯ রোগী মারা গেছেন। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা ১৮৪ জন হল।

একদিনে সুস্থ হয়েছেন আরো ১৯ জন। সরকারি হিসাবে এখন পর্যন্ত হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হলেন ১০৮৪ জন।

নতুন শনাক্ত ২৭১ জন রোগীর মধ্যে নগরীর বাসিন্দা ১৮৭ জন এবং বিভিন্ন উপজেলার মোট ৮৪ জন। এরমধ্যে ফটিকছড়ি উপজেলায় সর্বোচ্চ ১৫ জন শনাক্ত হয়েছে।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ল্যাবে সবচেয়ে বেশি ৪০৮টি নমুনা পরীক্ষা করে ১০০ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব শনাক্ত হয়। যাদের মধ্যে ৮৬ জন নগরীর এবং ১৪ জন উপজেলার বাসিন্দা।

বিআইটিআইডি ল্যাবে নমুনা পরীক্ষা করা হয় ৩১৫টি। এদের মধ্যে পজেটিভ আসে ২৩ জনের, যাতে নগরীর বাসিন্দা ছয়জন ও উপজেলার ১৭ জন।

চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড এনিমেল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ের (সিভাসু) ল্যাবে ২৫৪টি নমুনা পরীক্ষা করে ২৫ জনের পজিটিভ আসে। এদের মধ্যে নগরীর ১১ জন এবং বিভিন্ন উপজেলার ১৪ জন।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাবে ১৪২টি নমুনা পরীক্ষা করে ৫১ জনের কোভিড-১৯ শনাক্ত হয়। এর মধ্যে নগরীর ২১ জন ও বিভিন্ন উপজেলার ৩০ জন।

নগরীর বেসরকারি ইম্পেরিয়াল হাসপাতালে ১৫৭টি নমুনা পরীক্ষা করে ৪১ জনের কোভিড-১৯ শনাক্ত হয়েছে। তাদের মধ্যে ৩৪ জন নগরীর এবং সাতজন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা।

কক্সবাজার মেডিকেল কলেজে একটি নমুনা পরীক্ষা করে চট্টগ্রাম জেলার এক বাসিন্দার করোনভাইরাস শনাক্ত হয়েছে।

এছাড়া বেসরকারি শেভরন হাসপাতালে ৯৬টি নমুনা পরীক্ষা করে ৩০ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে ২৯ জন নগরীর এবং একজন উপজেলার বাসিন্দা।

গত মঙ্গলবার চট্টগ্রামে একদিনে সর্বোচ্চ ৪৪৫ জন কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়।