সৌম্যকে জানানো হয়েছে ‘৪-৫ মাস আগে’

ক্রিকেট অনুসারী-দর্শকরা তো বটেই, ক্রিকেট সংশ্লিষ্ট অনেকের কাছেও বড় চমক হয়ে এসেছে সৌম্য সরকারকে ফিনিশারের ভূমিকায় খেলানোর ভাবনা। তবে বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল জানালেন, সৌম্যকে নতুন দায়িত্বের জন্য প্রস্তুত থাকতে বলা হয়েছে অনেক আগেই। 

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের জন্য বাংলাদেশের রণপরিকল্পনায় ব্যাটিং অর্ডারে বড় পরিবর্তন আছে দুটি। কোচ রাসেল ডমিঙ্গো সোমবার সংবাদ সম্মেলনে জানান, গত বিশ্বকাপে তিন নম্বরে স্মরণীয় পারফরম্যান্স দেখালেও আপাতত সাকিব আল হাসান ব্যাট করবেন চারে। আর সৌম্যকে দেখা যাবে সাত নম্বরে কিংবা ফিনিশারের ভূমিকায়।

ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ৫৪ ইনিংসের ৫০টিতেই সৌম্য খেলেছেন টপ অর্ডারে। ৫, ৬ ও ৭ নম্বর মিলিয়ে ব্যাট করেছেন মোটে ৪ ইনিংস।

হুট করে তাকে ৭ নম্বরে খেলানোর সিদ্ধান্ত অনেকের জন্য বিস্ময় হয়ে এলেও তামিম মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনে জানান, সৌম্যর জন্য এটা চমক নয়।

“একটা ব্যাপার পরিষ্কার করতে চাই, তাকে এই ব্যাপারটা জানানো হয়েছে ৪ থেকে ৫ মাস আগে। এই পজিশনে আমরা খুব মানানসই কাউকে এখনও খুঁজে পানি। গত ৫-৭ বছর কেউ থিতু হতে পারেনি। এই পজিশনে যদি উপযুক্ত কাউকে পাওয়া না যায়, তাহলে কাউকে তৈরি করে নিতে হবে। সৌম্যকে আমরা এই বার্তাটা দিয়েছিলাম। প্রেসিডেন্ট’স কাপের আগেই ওকে এই কথা বলেছি যে, ‘৭ নম্বরে তোমার ব্যাট করতে হবে। এর জন্য মানসিক ও স্কিলের দিক থেকে তৈরি হও।”

‘এটা তাই কারও জন্য (দলের) বিস্ময় ছিল না। আপনাদের জন্য একটু হতে পারে, তবে আমাদের এটা আগে থেকেই জানা। সে নিজে ব্যাপারটা জানে, চার-পাঁচ মাস আগে থেকেই। শুধু সৌম্য নয়, এখানে লিটন আছে, আফিফ আছে। একটা পজিশনের জন্য দুই-তিন জন খেলোয়াড় আছে। আর এই পজিশন আমাদের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ।”

প্রেসিডেন্ট’স কাপের আগেই সৌম্যকে সাত নম্বরের কথা বলা হলেও গত অক্টোবরে ওই টুর্নামেন্টে সৌম্যকে সব ম্যাচেই দেখা গেছে ইনিংস ওপেন করতে। জাতীয় দলে যদি নিচে খেলানোর সিদ্ধান্তই হয়, তাহলে তখন তাকে সেই পজিশনে কেন খেলানো হয়নি, এই প্রশ্ন উঠল। তামিম বললেন, ব্যাপারটি তার হাতে ছিল না।

“এটা ঠিক সৌম্যকে আমরা প্রেসিডেন্ট’স কাপের আগেই বলেছি। আমি ব্যক্তিগতভাবে ওকে বলেছি, ‘যদি সম্ভব হয়, তুই ছয়-সাতে না পারলেও পাঁচে ব্যাটিং করিস।’ একটা নতুন ভূমিকায় খেলতে হবে-ওর প্রতি বার্তাটা ছিল খুব পরিস্কার। এর পর ও কী করেছে বা না করেছে, সেটা আমরা সবাই দেখেছি। ওর ওই সময়ের পরিস্থিতির কথা আমার জন্য বলা কঠিন হবে। তবে যদি আমার দলে থাকত, তাহলে অবশ্যই আমি ওই জিনিসটা করার চেষ্টা করতাম।”