২৯ বছর বয়সে ভারতীয় ক্রিকেটারের মৃত্যু

মাত্র ২৯ বছর বয়সেই থেমে গেল অভি ব্যারটের জীবনের ইনিংস। কার্ডিয়াক অ্যারেস্টে আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন সৌরাষ্ট্রের হয়ে রঞ্জি ট্রফি জয়ী ভারতের এই ক্রিকেটার।   

সৌরাষ্ট্র ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন শনিবার এক বিবৃতিতে জানায়, শুক্রবার আহমেদাবাদে নিজ বাড়িতে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন ব্যারট। তাদের মতে, অসাধারণ ক্রিকেটার ছিলেন তিনি।

ব্যারট ছিলেন মূলত ব্যাটসম্যান। মাঝে মধ্যে উইকেটকিপিং এবং অফ স্পিন বোলিংও করতেন। সৌরাষ্ট্র দলে যোগ দেওয়ার আগে ঘরোয়া ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন তিনি গুজরাটের হয়ে। খেলেছিলেন হরিয়ানার হয়েও।

৩৮টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচে ৪৮.৪৯ গড়ে তার রান ১ হাজার ৫৪৭। সমান সংখ্যক লিস্ট ‘এ’ ম্যাচে ২৮.৬১ গড়ে করেছেন এক হাজার ৩০ রান। আর ২০ টি-টোয়েন্টিতে ৩৭.৭৩ গড়ে রান ৭১৭। 

ভারতের ঘরোয়া প্রথম শ্রেণির প্রতিযোগিতা রঞ্জি ট্রফির ২০১৫-১৬ আসরের ফাইনালে ওঠা সৌরাষ্ট্র দলেরও গুরুত্বপূর্ণ সদস্য ছিলেন তিনি। সেবার মুম্বাইয়ের বিপক্ষে হেরে শিরোপা স্বপ্ন ভেঙেছিল তাদের। ২০১৮-১৯ মৌসুমের ফাইনালে আবার হারে তারা বিদর্ভের বিপক্ষে। অবশেষে প্রথমবার সৌরাষ্ট্র রঞ্জি জেতে ২০১৯-২০ মৌসুমে। সেবার ৩৪.৩৩ গড়ে তিন ফিফটিতে ব্যারট করেন ৩০৯ রান।

২০১১ সালে ভারত অনূর্ধ্ব-১৯ দলের অধিনায়ক ছিলেন তিনি। চার সেঞ্চুরি ও তিন ফিফটিতে গুজরাটকে ২০১০-১১ মৌসুমে কুচ বিহার ট্রফি জিতিয়ে ওই বছর পেয়েছিলেন বিসিসিআইয়ের বর্ষসেরা অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেটারের পুরস্কার।

২০২০-২১ মৌসুমে সৌরাষ্ট্রর হয়ে একদিনের ম্যাচের টুর্নামেন্ট বিজয় হাজারে ট্রফি ও টি-টোয়েন্টি প্রতিযোগিতা সৈয়দ মুশতাক আলি ট্রফি, দুটিতেই খেলেন ব্যারট। গত জানুয়ারিতে গোয়ার বিপক্ষে খেলেন মাত্র ৫৩ বলে ১২২ রানের বিধ্বংসী ইনিংস। গত মার্চে বিজয় হাজারে ট্রফির কোয়ার্টার-ফাইনালে মুম্বাইয়ের বিপক্ষে ম্যাচটি হয়ে থাকল তার শেষ ম্যাচ।