নখ দিয়ে বল খুঁটে নিষিদ্ধ ডাচ পেসার

আফগানিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজটা এমনিতেই তেমন ভালো কাটেনি ভিভিয়ান কিংমার। সিরিজ শেষে যোগ হলো আরেক ধাক্কা। বল টেম্পারিংয়ের দায়ে ৪ ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা পেলেন নেদারল্যান্ডসের এই ফাস্ট বোলার।  

দোহায় মঙ্গলবার তিন ম্যাচ সিরিজের শেষ ওয়ানডেতে এই কাণ্ড ঘটান কিংমা। সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আইসিসি জানায়, আফগান ইনিংসের ৩১তম ওভারে তিনি নখ দিয়ে আঁচড়ে বলের আকৃতি পরিবর্তন করেন।

এজন্য অবশ্য ম্যাচ চলার সময়ই শাস্তি পেতে হয় নেদারল্যান্ডসকে। ‘পেনাল্টি’ হিসেবে আফগানিস্তানের ইনিংসে যোগ হয় ৫ রান।

ম্যাচের পর শাস্তি পেলেন কিংমা। আইসিসির আচরণবিধির লেভেল ৩ ভাঙার অপরাধে তার নিষেধাজ্ঞার কথা বুধবার সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানায় ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্তা সংস্থা।

বলের আকৃতি পরিবর্তন সংক্রান্ত এই ধারার সর্বনিম্ন শাস্তি চারটি ‘সাসপেনশন পয়েন্ট।’ প্রতিটি সাসপেনশন পয়েন্টের জন্য ওয়ানডে বা টি-টোয়েন্টিতে একটি করে ম্যাচ নিষিদ্ধ হতে হয়। যে সংস্করণের খেলা আগে আসবে, সেই সংস্করণেই কার্যকর হয় নিষেধাজ্ঞা।  

চারটি সাসপেনশন পয়েন্ট ছাড়াও কিংমার নামের পাশে যোগ হয়েছে পাঁচটি ডিমেরিট পয়েন্ট। ২৪ মাস সময়ের মধ্যে এটি তার প্রথম অপরাধ।

কিংমা দায় স্বীকার করে ম্যাচ রেফারির দেওয়া শাস্তি মেনে নেন। তাই আনুষ্ঠানিক শুনানির প্রয়োজন হয়নি।

আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ সুপার লিগের অংশ এই সিরিজে তিন ম্যাচেই হেরে হোয়াইটওয়াশড হয় নেদারল্যান্ডস। শেষ ম্যাচে ৫০ রানে একটিসহ সিরিজে কিংমার উইকেট ২টি।

২৭ বছর বয়সী এই বোলার এখন পর্যন্ত ডাচদের হয়ে খেলেছেন ১০টি ওয়ানডে ও ৯টি টি-টোয়েন্টি।