ক্লার্ক-স্যান্টনার ঝড়ে চ্যাম্পিয়ন নর্দার্ন ব্রেভ

শিরোপা জয়ের উল্লাস করছে নর্দার্ন ব্রেভ। ছবি: নিউ জিল্যান্ড ক্রিকেট।
প্রথম চার ব্যাটসম্যানের তিন জনই ফিরে গেলেন এক অঙ্কে। তবে ওপেনার ক্যাটিনি ক্লার্কের ব্যাটে উঠল ঝড়। সঙ্গে মিচেল স্যান্টনারের বিস্ফোরক ইনিংসে রেকর্ড সংগ্রহ গড়ল নর্দার্ন ব্রেভ। সুপার স্ম্যাশে নিজেদের সর্বোচ্চ পুঁজি গড়ার পর বোলারদের নৈপুণ্যে কেন্টারবুরি কিংসকে সহজেই হারিয়ে শিরোপা জিতল নর্দার্ন ব্রেভ।

নিউ জিল্যান্ডের ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টটির ফাইনালে শনিবার তাদের জয় ৫৬ রানে। ২০১৭-১৮ মৌসুমের পর প্রথমবার চ্যাম্পিয়ন হলো দলটি। সুপার স্ম্যাশে এটি তাদের তৃতীয় শিরোপা।

ক্লার্ক ও স্যান্টনারের ক্যারিয়ার সেরা ইনিংসে ৫ উইকেটে ২১৭ রান তোলে নর্দার্ন ব্রেভ। টুর্নামেন্টে প্রথমবার দুইশ করল দলটি। ৪ ছক্কা ও ৮ চারে ৩৪ বলে ৭১ রান করেন ওপেনার ক্লার্ক। পাঁচে নেমে ৯ ছক্কা ও ৪ চারে ৪০ বলে ৯০ রান নিয়ে অপরাজিত ছিলেন স্যান্টনার।

রান তাড়ায় টিম সাউদি ও ইশ সোধির বোলিংয়ে নিয়মিত উইকেট হারিয়ে ১৬১ রানে গুটিয়ে যায় কেন্টারবুরি। পেসার সাউদি ও লেগ স্পিনার সোধি দুইজনেই নেন তিনটি করে উইকেট।

হ্যামিল্টনের সেডন পার্কে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে দ্বিতীয় ওভারেই টিম সাইফার্টকে হারায় নর্দার্ন ব্রেভ। দুই অঙ্কে জেতে পারেননি অধিনায়ক জিত রাভাল ও অলরাউন্ডার কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম।

সতীর্থদের আসা-যাওয়ার মাঝেই ঝড়ো গতিতে রান তুলতে থাকেন ক্লার্ক। ১৯ বলে ক্যারিয়ারের প্রথম ফিফটি তুলে নেন ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান। পরে তার সঙ্গে দ্রুত রান তোলায় সঙ্গ দেন স্যান্টনার। ১০.২ ওভারে ১০০ ছুঁয়ে ফেলে দল।

ক্লার্ককে ফিরিয়ে ৫০ রানের জুটি ভাঙেন ড্যারিল মিচেল। ওই ওভারের শেষ তিন বলে মিচেলকে একটি চার ও দুটি ছক্কা হাঁকান স্যান্টনার। পরের ওভারে ২৪ বলে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় পঞ্চাশে পা রাখেন এই স্পিনিং অলরাউন্ডার।

কোল ম্যাকনকিকে একটি করে চার-ছক্কার পর স্যান্টনার দুই ছক্কায় ওড়ান মিচেলকে। পরে ম্যাট হেনরি ও এড নাটালকে একটি করে মারেন ছক্কা।

জবাব দিতে নেমে কেন্টারবুরির কয়েকজন ব্যাটসম্যান ভালো শুরু পেলেও বড় করতে পারেননি ইনিংস। প্রথম আট ব্যাটসম্যানের চারজন দুই অঙ্কে গেলেও কেউ ২৫ ছুঁতে পারেননি।

ফলে কখনোই সেভাবে জয়ের সম্ভাবনা জাগাতে পারেনি দলটি।

তাদের রান দেড়শ ছাড়ায় মূলত হেনরির ব্যাটে। ৯ নম্বরে নেমে ৩ ছক্কা ও ৪ চারে ২২ বলে ক্যারিয়ার সেরা ৪৪ রান করেন তিনি। তাতে কেবল পরাজয়ের ব্যবধানই কমেছে দলটির।

একই দিন মেয়েদের সুপার স্ম্যাশ ফাইনালে ওটাগো স্পার্কসকে ৭৫ রানে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ওয়েলিংটন ব্লেজ। ১৭৬ রানের লক্ষ্য দিয়ে প্রতিপক্ষকে তারা গুটিয়ে দিয়েছে ১০০ রানে।

পুরুষ ফাইনালের সংক্ষিপ্ত স্কোর:

নর্দার্ন ব্রেভ: ২০ ওভারে ২১৭/৫ (ক্লার্ক ৭১, সাইফার্ট ৫, রাভাল ৯, ডি গ্র্যান্ডহোম ৯, স্যান্টনার ৯২*, কুপার ১৬, কুগেলাইন ৬*; হেনরি ৪-০-৩৬-০, শিপলে ৪-০-৩০-২, নাটাল ৪-০-৪২-০, অ্যাস্টল ৩-০-৪০-০, ম্যাকনকি ৩-০-৩৬-১, মিচেল ২-০-৩৩-১)

কেন্টারবুরি কিংস: ১৮.৫ ওভারে ১৬১ (বোয়েস ১৯, ল্যাথাম ১১, মিচেল ৮, কার্টার ১১, ম্যাকনকি ২৩, ফ্লেচার ৯, হেয় ২, শিপলে ৪, হেনরি ৪৪, অ্যাস্টল ১৩*, নাটাল ১১; সাউদি ৩.৫-০-৩৯-৩, অনুরাগ ৩-০-১৯-০, স্যান্টনার ৩-০-২৩-১, কুগেলাইন ১-০-৬-১, সোধি ৪-০-৪৮-৩, ওয়াকার ৪-০-২৫-২)

ফল: নর্দার্ন ব্রেভ ৫৬ রানে জয়ী