১১ বছর পর ইংলিশ ক্রিকেটে পোলার্ড

এক দশকের বেশি সময় পর ইংলিশ ক্রিকেটে খেলবেন কাইরন পোলার্ড। টি-টোয়েন্টি ব্লাস্টে খেলার জন্য সারের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাবেক অধিনায়ক। দলটিতে তিনি সতীর্থ হিসেবে পাচ্ছেন ঘনিষ্ঠ বন্ধু ও স্বদেশি সুনিল নারাইনকে।

গত মাসে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় বলার পর থেকে পোলার্ডের সঙ্গে একাধিক কাউন্টি দল আলোচনা করছিল টি-টোয়েন্টি ব্লাস্টে তার খেলার সম্ভাবনা নিয়ে। অস্ট্রেলিয়ান পেসার শন অ্যাবটের সঙ্গে চুক্তি বাতিল হওয়ায় পোলার্ডকে দলে পেতে বেশি উদগ্রীব ছিল সারে।

৩৫ বছর বয়সী অলরাউন্ডারের সঙ্গে চুক্তির কথা শুক্রবার বিবৃতি দিয়ে জানায় ক্লাবটি। ধারণা করা হচ্ছে, আগামী ৩১ মে কিয়া ওভালে গ্লস্টারশায়ারের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি মৌসুমে সারের দ্বিতীয় হোম ম্যাচে তাদের জার্সিতে অভিষেক হতে পারে পোলার্ডের।    

সবশেষ তিনি ইংলিশ ক্রিকেটে খেলেছিলেন ২০১১ সালে। সেবার ফ্রেন্ডস লাইফ টি-টোয়েন্টির ফাইনালে লেস্টারশায়ারের বিপক্ষে হেরেছিল তার দল সমারসেট। ২০২০ সালে নর্থ্যাম্পটনশায়ারের হয়ে খেলার কথা ছিল তার। কিন্তু কোভিড মহামারীর কারণে চুক্তি বাতিল হয়ে যায়।

২০ ওভারের ক্রিকেটে ১১ হাজারের বেশি রান করা পোলার্ড সারের বিবৃতিতে বললেন, লম্বা সময় পর ইংলিশ ক্রিকেটে খেলার সুযোগ পেয়ে রোমাঞ্চিত তিনি।

“আমি সবশেষ কাউন্টি ক্রিকেটে খেলার পর অনেকটা সময় পেরিয়ে গেছে। এই বছর সারের হয়ে ভাইটালিটি ব্লাস্ট প্রতিযোগিতায় ফিরতে পেরে আমি রোমাঞ্চিত। খেলার জন্য কিয়া ওভাল বিশেষ জায়গা, বিশেষ করে দর্শকে পূর্ণ গ্যালারির সামনে।”

২০০৩ সালে উদ্বোধনী আসর থেকে কখনও টি-টোয়েন্টি ব্লাস্টে শিরোপা জিততে পারেনি সারে। গতবার নকআউট পর্বে উঠতে ব্যর্থ হওয়া দলটি এই মৌসুমে অবশ্য শিরোপার জন্য ফেভারিটদের মধ্যে আছে৷

পোলার্ড ও নারাইন ইংল্যান্ডের মাটিতে একসঙ্গে মাত্র কয়েকটি ম্যাচ খেলেছেন। যার সবশেষটি ২০১৭ সালে, ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতে। অতীতে তারা ওয়েস্ট ইন্ডিজ, সিপিএলে ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগো ও ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্স এবং বিপিএলে ঢাকা ডায়নামাইটসের হয়ে একসঙ্গে খেলেছেন।

আইপিএলের চলতি মৌসুম পোলার্ডের তেমন ভালো কাটেনি। মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে ১১ ইনিংসে ১০৭.৪৬ স্ট্রাইক রেটে রান করেছেন কেবল ১৪৪। টুর্নামেন্টের মাঝপথে হুট করেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দেন ওই সময়ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের সীমিত ওভারের দুই সংস্করণের অধিনায়কের দায়িত্বে থাকা পোলার্ড।

এবার আইপিএলে রান না পেলেও ব্যাট হাতে দারুণ ফিনিশার, কার্যকর বোলিং ও নেতৃত্বগুণের জন্য টি-টোয়েন্টিতে কাঙ্ক্ষিত ক্রিকেটারদের একজন পোলার্ড। সারের নতুন টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক ক্রিস জর্ডানকে সাহায্য করবেন তিনি। দুই জনে এর আগে অ্যাডিলেইড স্টাইকার্স, পেশাওয়ার জালমি ও ত্রিনবাগোতে একসঙ্গে খেলেছেন।

ইংলিশ গ্রীষ্মের বেশিরভাগ সময়ই এবার লন্ডনে কাটাবেন পোলার্ড। গত মাসে ‘দা হানড্রেড’ এর ড্রাফটে তাকে দলে টানে লন্ডন স্পিরিট।