ভারত টি-টোয়েন্টি দলে উমরান, ফিরলেন পান্ডিয়া-কার্তিক

উমরান মালিক
গতির ঝড় তুলে আইপিএলে তোলপাড় ফেলে দেওয়া উমরান মালিক প্রথমবারের মতো ডাক পেয়েছেন ভারত জাতীয় দলে। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজের দলে ফিরেছেন হার্দিক পান্ডিয়া ও দিনেশ কার্তিক। 

আগামী মাসে দেশের মাটিতে হতে যাওয়া পাঁচ ম্যাচের জন্য রোববার ১৮ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড-বিসিসিআই। বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে তিন সংস্করণের অধিনায়ক রোহিত শর্মা, বিরাট কোহলি ও জাসপ্রিত বুমরাহকে।

দলকে নেতৃত্ব দেবেন লোকেশ রাহুল। উমরান ছাড়াও প্রথমবার ডাক পেয়েছেন আরেক পেসার আর্শদিপ সিং।

দলে নেই দিপক চাহার, রবীন্দ্র জাদেজা ও সূর্যকুমার যাদব। তিন জনই চোটের কারণে বাইরে আছেন। গত ফেব্রুয়ারিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সবশেষ টি-টোয়েন্টি সিরিজের দল থেকে বাদ পড়েছেন মোহাম্মদ সিরাজ ও সাঞ্জু স্যামসন।

গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ দিয়ে এই সংস্করণে অধিনায়কের পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর পর থেকে কোহলি মাত্র দুটি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজেও তাকে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছিল। সবশেষ খেলেছিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজে, গত ফেব্রুয়ারিতে।

দলে ডাক পাওয়া উমরানের গতির ঝলক প্রথম দেখা যায় গত আইপিএলে। সেবার স্রেফ তিনটি ম্যাচে সুযোগ পেলেও নিজের প্রতিভার জানান দেন তিনি। ভবিষ্যৎ সম্ভাবনার ঝিলিক দেখেই এবার মেগা নিলামের আগে ২২ বছর বয়সী এই ফাস্ট বোলারকে ধরে রাখে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। তিনি আশাহত করেননি দলকে।

এবার প্রথম ১৩ ম্যাচে ২১ উইকেট নেন উমরান। গুজরাট টাইটান্সের বিপক্ষে স্রেফ ২৫ রান দিয়ে নেন ৫ উইকেট। স্বীকৃত টি-টোয়েন্টিতে যা তার ক্যারিয়ার সেরা বোলিং। দিল্লি ক্যাপিটালসের বিপক্ষে তার একটি বলের গতি স্পর্শ করে ১৫৬.৯ কিলোমিটার। আইপিএলে ১০ বছরের মধ্যে যা সবচেয়ে গতিময় ডেলিভারি।

কাশ্মীরের এই ফাস্ট বোলার গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতের নেট বোলার হিসেবে ডাক পেয়েছিলেন। এবার জায়গা পেয়ে গেলেন মূল স্কোয়াডে।

আর্শদিপ পাঞ্জাব কিংসের হয়ে এবার ১৪ ম্যাচে নিয়েছেন ১০ উইকেট।

আইপিএলে নিজ নিজ দলের হয়ে দারুণ পারফরম্যান্সের সুবাদে জাতীয় দলের দরজা আবার খুলে গেছে পান্ডিয়া ও  কার্তিকের জন্য।

ভারতের হয়ে পান্ডিয়া সবশেষ খেলেছিলেন গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে। চোট ঝুঁকিতে সেবার তিনি মূলত স্পেশালিষ্ট ব্যাটসম্যান হিসেবে দলে ছিলেন। তবে চলমান আইপিএলে নিয়মিতভাবে বল হাতে তুলে নিয়েছেন। পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে থাকা গুজরাট টাইটান্স অধিনায়ক এখন পর্যন্ত বোলিং করেছেন মোট ২৪.৩ ওভার। ব্যাটিংয়েও বেশ ছন্দে আছেন।

এবারের আইপিএলে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করে কার্তিক ভারত দলে ফিরলেন তিন বছর পর। আসরে নিজেকে তিনি নতুন করে চিনিয়েছেন ‘ফিনিশার’ হিসেবে। এখন পর্যন্ত ১৪ ম্যাচে ১৯১.৩৩ স্ট্রাইক রেটে রান করেছেন ২৮৭।

শেষের দিকে রীতিমতো খুনে মেজাজে ব্যাট করছেন কার্তিক। ওই সময়ে অন্তত ৩০ বল খেলা ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সর্বোচ্চ স্ট্রাইক রেট তার (২২৬.৩৭)।

আগামী ৯ জুন শুরু হবে ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকার টি-টোয়েন্টি সিরিজ। শেষ ম্যাচ ১৯ জুন।

ভারত দল:

লোকেশ রাহুল (অধিনায়ক), রুতুরাজ গায়কোয়াড়, ইশান কিষান, দিপক হুডা, শ্রেয়াস আইয়ার, রিশাভ পান্ত (সহ-অধিনায়ক), দিনেশ কার্তিক, হার্দিক পান্ডিয়া, ভেঙ্কাটেশ আইয়ার, যুজবেন্দ্র চেহেল, কুলদিপ যাদব, আকসার প্যাটেল, রবি বিষ্ণোই, ভুবনেশ্বর কুমার, হার্শাল প্যাটেল, আভেশ খান, আর্শদিপ সিং, উমরান মালিক।