চাঁদার জন্য ঠিকাদারকে মারধর, চট্টগ্রামে ছয়জন গ্রেপ্তার

যুবলীগের নাম ভাঙ্গিয়ে ঠিকাদারের কাছে দুই লাখ টাকা চাঁদা দাবির অভিযোগে চট্টগ্রামে ছয়জনকে ‘হাতেনাতে’ গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

সোমবার আগ্রাবাদ বিদ্যুৎ ভবন থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয় বলে জানান ডবলমুরিং থানার ওসি মোহাম্মদ মহসিন।

গ্রেপ্তাররা হলেন- শাহনুর শাহীন (৫৩), মো. ইকবাল (৪৭), নূরুল কবির (৪৫), তৌহিদুল আলম (৪০), ওসমান গণি দুলু (৪৫) ও নুরুল আফসার টিপু (৪৫)।

তাদের মধ্যে ওসমান গণি দুলু সিআরবি জোড়া খুনের আসামি আর তৌহিদুল আলম একটি হত্যা মামলায় নয় বছর জেলে ছিলেন। 

ডবলমুরিং থানার ওসি মোহাম্মদ মহসিন বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “গ্রেপ্তার ছয়জন এক সন্ত্রাসীর নাম ভাঙ্গিয়ে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের প্রথম শ্রেণির ঠিকাদার বশির উদ্দিনের কাছে দুই পার্সেন্ট কমিশন হিসেবে দুই লাখ টাকা দাবি করে।

“দাবি অনুযায়ী টাকা না দেওয়ায় তারা বশিরকে আগ্রাবাদ বিদ্যুৎ ভবনের ছয় তলার একটি কক্ষে আটকে মারধর করে। বশিরের ফোন পেয়ে ডবলমুরিং থানা পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে ছয়জনকে গ্রেপ্তার এবং বশিরকে উদ্ধার করে।”

ঠিকাদার বশির জানান, ২০০৯ সাল থেকে তিনি প্রথম শ্রেণির ঠিকাদার হিসেবে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডে কাজ করছেন।

“তারা বিভিন্ন সময়ে ফোনে হুমকি দিয়ে আসছিল। সোমবার দুপুরে তারা দুই লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে বিদ্যুৎ ভবনে আসতে বলে। ৪০ হাজার টাকা দেওয়ার কথা বললে তারা আমাকে একটি রুমে নিয়ে আটকে রাখে। সেখানে দুলু আমাকে মারধর করে।

আগেও বিভিন্ন সময়ে তারা চাঁদা দাবি করেছে এবং চাঁদা না দেওয়ায় গতবছর মারধর তাকে করা হয়েছিল বলে দাবি করেন বশির।