রেল দুর্ঘটনা: ঝাউতলার গেইটম্যান আটক

চট্টগ্রামের জাকির হোসেন রোডে ঝাউতলা লেভেল ক্রসিংয়ে ডেমু ট্রেনের সঙ্গে অটোরিকশা ও মিনিবাসের ধাক্কায় তিনজন নিহতের ঘটনায় গেইটম্যানকে আটক করেছে পুলিশ।

রোববার সন্ধ্যার পর নগরীর পাহাড়তলী এলাকা থেকে আশরাফুল আলমগীর ভূইয়া নামের ওই গেইটম্যানকে আটক করা হয় বলে জানান খুলশী থানার ওসি সন্তোষ কুমার চাকমা।

তিনি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “আমরা তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় এনেছি। রেল পুলিশ ঘটনা তদন্ত করছে। তারা তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করবেন।”

এ ঘটনায় মিনিবাসের চালককে আসামি করে রেলওয়ে থানা পুলিশের ষোলশহর ফাঁড়ির এসআই জাহাঙ্গীর আলম বাদী হয়ে একটি মামলা করেন।

চট্টগ্রাম রেলওয়ে থানার দায়িত্বরত কর্মকর্তা এসআই আবুল হোসাইন বলেন, তদন্তে অন্য কারও নাম উঠে এলে তাদেরও আসামি করা হবে। 

শনিবার সকালে নগরীর খুলশী থানাধীন ঝাউতলা রেলক্রসিংয়ে নাজিরহাট থেকে চট্টগ্রাম স্টেশনমুখী ডেমু ট্রেনের সাথে সিএনজি অটো রিকশা ও মিনিবাসের সংঘর্ষ ঘটে। 

রেলক্রসিংয়ের ফয়’স লেকমুখী অংশে দাঁড়িয়ে থাকা অটো রিকশাকে পেছন থেকে মিনিবাস ধাক্কা দিলে এটি রেললাইনে গিয়ে পড়ে। চলন্ত ডেমু ট্রেনটি দুটি গাড়িকেই কিছুদূর টেনে নিয়ে যায়। 

দুর্ঘটনায় ওই ক্রসিংয়ে দায়িত্বরত এক ট্রাফিক কনস্টেবলসহ তিনজন নিহত হন।

ঘটনার পর খুলশী থানা ও রেলওয়ে পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয় ক্রসিংয়ের গেইটম্যানের গাফিলতির কারণে একদিকে লোহার বার না নামানোর কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটে থাকতে পারে। 

এ ঘটনায় রেলওয়ে পুলিশ ও পূর্ব রেলের পক্ষ থেকে পৃথক দুটি তদন্ত কমিটি করা হয়েছে।