কথা কাটাকাটির জেরে গৃহকর্ত্রীকে ‘কুপিয়ে খুন’

কথা কাটাকাটির জেরে দা দিয়ে ‘কুপিয়ে’ গৃহকর্ত্রীকে হত্যার অভিযোগে এক তরুণীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

সোমবার সকালে চট্টগ্রামের হাটহাজারি উপজেলার চিকনদণ্ডী ইউনিয়নের আমান বাজারের ভাড়া বাসায় মর্জিনা বেগমকে (৪৫) দা দিয়ে এলোপাথাড়ি আঘাত করেন গৃহকর্মী সঞ্চিতা বেগম (২৫)।

আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুরে মর্জিনা মারা যান বলে জানান হাটহাজারি থানার এসআই জাহাঙ্গীর আলম।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে তিনি জানান, মর্জিনা পক্ষাঘাতগ্রস্থ, তার স্বামী স্থানীয় একটি কিন্ডারগার্টেনের শিক্ষক। দিন ১৫ আগে তাদের বাসায় কাজ নিয়েছিলেন সঞ্চিতা।

প্রাথমিক তথ্যের ভিত্তিতে ঘটনাস্থল যাওয়া এই পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, “সকালে স্বামী স্কুলে যাওয়ার পর মর্জিনা গৃহকর্মী সঞ্চিতাকে কাঁঠাল ভাঙতে বলেন।

“সঞ্চিতা কাঁঠাল না ভাঙায় এ নিয়ে দুইজনের বিতণ্ডার এক পর্যায়ে সে মর্জিনাকে দা দিয়ে মাথায় এলোপাথাড়ি কুপিয়ে জখম করে।”

এ ঘটনায় গৃহকর্মী সঞ্চিতাকে গ্রেপ্তারের পর জিজ্ঞাসাবাদের বরাত দিয়ে এসআই জাহাঙ্গীর জানান, রোববার রাতে গৃহকর্ত্রী মর্জিনা বকাঝকা করে গায়ে হাত তুলেছিলেন বলে অভিযোগ করেন সঞ্চিতা।

“সোমবার সকালে সে (সঞ্চিতা) ঘুম থেকে উঠে অন্য কাজ করার সময় তাকে কাঁঠাল ভাঙতে বলেন মর্জিনা। না ভাঙায় তাকে মারধর করে। এই ক্ষোভ থেকেই সে মর্জিনাকে কুপিয়ে জখম করে।”

তিনি জানান, শাহজালাল নামে এক যুবককে বিয়ে করে ধর্মান্তরিত হয়েছিলেন ক্ষুদ্র নৃ গোষ্ঠীর নারী সঞ্চিতা। কিন্তু স্বামী তাকে ছেড়ে চলে যায়।