দর্শকদের টিভি দেখার অভ্যাসটা থাকবেই: বান্নাহ

এবার ভালোবাসা দিবসে পাঁচটি টিভি নাটক নির্মাণ করেছেন ছোটপর্দার নির্মাতা মাবরুর রশিদ বান্নাহ। 

গ্লিটজকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলছেন, ওটিটি কনটেন্টের এই যুগেও দর্শকদের টিভি দেখার অভ্যাস থাকবে; ওটিটির সঙ্গে টিভির প্রতিযোগিতাও নেই। তবে দুই ক্ষেত্রেই আলাদাভাবে গুণগত মান ধরে রাখতে হবে।

ভালোবাসা দিবসে আপনার পাঁচটি নাটক প্রচার হয়েছে; প্রতিক্রিয়া কেমন পাচ্ছেন?

মাবরুর রশিদ বান্নাহ: সবগুলো নাটকের ভালো প্রতিক্রিয়া পেয়েছি। তবে সবচেয়ে বেশি প্রতিক্রিয়া পেয়েছি ‘ব্রাদার্স’-৩’ ও ‘হাফ হানিমুন’ থেকে। ব্রাদার্সে অভিনয় করেছেন জোভান, শাওন, মনিরা মিঠু ও পারসা ইভানা।

আর হাফ হানিমুনে অভিনয় করেছেন তাহসান খান ও নুসরাত ইমরোজ তিশা। এছাড়া ‘বদমায়েশ পোলাপাইন’র দর্শক আগে থেকেই ছিল। এবার সিজন টু আসার পর আরও ভালো সাড়া পেয়েছি। বিশেষ করে ‘বেয়াদব’টাও ভালো ছিল।

সামনে ঈদের জন্য কী কী নাটক নির্মাণ করছেন?

মাবরুর রশিদ বান্নাহ: ‘বদমায়েশ পোলাপান’র কাজ চলছে। ‘সি ফর কোচিং’ রিলিজ হচ্ছে। ঈদের কাজগুলো শুরু করে দিয়েছি। ‘বদমায়েশ পোলাপান’ নতুনভাবে এসেছে। খুবই ভালো প্রতিক্রিয়া পাচ্ছি। ঈদের কাজগুলো নিয়ে ভাবছি, চিন্তা করছি।

এই সময়ের টিভি নাটক নিয়ে আপনার পর্যবেক্ষণ কী?

মাবরুর রশিদ বান্নাহ: টিভি নাটক এক ধরনের সংকটের মধ্য দিয়েই যাচ্ছে। এখনও যাচ্ছে-তা বলব না।নতুন নতুন প্রডিউসাররা আসছেন, অনলাইন প্লাটফর্ম এসেছে। টিভি চ্যানেলগুলোও ভিন্নভাবে ভাবছে। এবার ভালোবাসা দিবসের কনটেন্টগুলো যদি দেখেন তাহলে দেখবেন, ভালো কাজ এসেছে। শুধু আমার কেন, অন্যান্য অনেক ডিরেক্টর ভালো কাজ করেছেন। তাদের সবাইকে অভিনন্দন জানাই।

ওটিটি প্লাটফর্মের এই যুগে টিভি নাটকের ভবিষ্যত কেমন দেখছেন?

মাবরুর রশিদ বান্নাহ: ওটিটি প্লাটফর্মের এই যুগে টিভি নাটককে তাদের কোয়ালিটি বজায় রাখতে হবে।সংঘর্ষের কিছু নেই বা প্রতিযোগিতারও কিছু নেই। তবে আলাদাভাবে নিজের মান ধরে রাখতে হবে। কোয়ালিটি দিয়ে ফাইট করতে হবে। কোয়ালিটি ছাড়া কোনও অপশন নাই। টিভি কনটেন্টের মান যদি ভালো হয় তাহলে অবশ্যই জায়গাটা ঠিক থাকবে। মানুষ এখনও পর্যন্ত টেলিভিশনেই মানুষ কনটেন্ট দেখতে বেশি পছন্দ করেন। যেমন, আমি টেলিভিশনে নেটফ্লিক্স দেখি। টিভি দেখার অভ্যাসটা মানুষের থাকবেই। টিভির কর্তাব্যক্তিদের বিষয়টিকে গুরুত্ব দিতে হবে।

ওয়েব কনটেন্ট নিয়ে আলাদাভাবে আপনার কোনও পরিকল্পনা আছে?

মাবরুর রশিদ বান্নাহ: আলাদভাবে আমার অবশ্যই পরিকল্পনা আছে। বেশ ভালোভাবেই আছে। সামনের দিনগুলোতে আমার দর্শক ও আমার শুভাকাঙ্ক্ষীদের ভালো কিছু উপহার দেবো বলে আশা রাখছি।

দীর্ঘদিন ধরেই নাটক নির্মাণে যুক্ত আছেন; সিনেমা বানানোর কোনও পরিকল্পনা আছে?

মাবরুর রশিদ বান্নাহ: সিনেমার বানানোর পরিকল্পনা ছোটবেলা থেকেই ছিল। ভাগ্যক্রমে নাটক করতে হয়েছে। আমি সামনে করব অবশ্যই। অনেকবার বলে আসছি। আমি সঠিক সময়ের অপেক্ষায় আছি। ব্যাটে-বলে মিলে গেলে আমি সিনেমায় হাত দেবো ইনশাল্লাহ।