‘থর’-এর পরের ছবিতে ভিলেন ক্রিশ্চিয়ান বেল

ভিলেন ক্রিশ্চিায়ন বেলকে দেখে ‘লজ্জা পাবেন’ থ্যানোস!

চরিত্রের প্রয়োজনে নিজেকে যেন আমূল বদলে ফেলেছেন ক্রিশ্চিয়ান বেল। নায়ক থেকে হয়ে উঠেছেন ভয়ঙ্কর এক ভিলেন- গর দ্য গড বুচার! ‘থর: লাভ অ্যান্ড থান্ডার’ ছবিতে তাকে দেখে নাকি লজ্জা পাবেন থ্যানোস।

মার্ভেল সিনেমাটিক ইউনিভার্সে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে ভয়ঙ্কর ভিলেন থ্যানোস। আঙুলে তুড়ি দিয়ে যিনি মিলিয়ে দিয়েছিলেন ব্রহ্মাণ্ডের অর্ধেক প্রাণ। তাকে ছাড়িয়ে যেতে কঠোর পরিশ্রম করছেন বেল। ৪৭ বছর বয়সি এই ব্রিটিশ অভিনেতা নিজেকে গড়ে তুলেছেন নতুন করে। তার জন্য অবশ্য এটা নতুন কিছু নয়।

‘ডার্ক নাইট ট্রিলজি’, ‘দা মেশিনিস্ট’, ‘দা ফাইটার’, ‘আমেরিকান হাসল’ এবং ‘ভাইস’ সিনেমায় দেখা গেছে এই চিত্র। ওজন কমিয়ে কিংবা বাড়িয়ে চরিত্রের উপযোগী করেছেন নিজেকে।

এবার ওজন ঝরিয়ে লিকলিকে হয়ে গেছেন অস্কারজয়ী বেল। তাকে দেখা গেছে মাথা সম্পূর্ণ কামানো অবস্থায়। অবশ্য এই ছবি দেখে বোঝার উপায় নেই যে পর্দায় কতটা ভয়ঙ্কর হিসেবে উপস্থাপন করা হবে তকে।

‘গর দ্য গড বুচার’ চরিত্র সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যায়নি। তবে কমিকবুক মুভি ডটকম বলছে, পর্দায় বেল’য়ের এই চরিত্র দেখে ‘লজ্জা পাবে’ থ্যানোস।

সেটা সত্যি কি না জানার জন্য আগামী বছরের ৬ মে পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। সেদিনই টাইকা ওয়াটিটি পরিচালিত ছবিটি মুক্তি পাবে।

‘অ্যাভেঞ্জার্স: এন্ড গেইম’য়ে মুটিয়ে যাওয়া ক্রিস হেম্সওর্থ যথারীতি থাকছেন থর চরিত্রে। অস্কারজয়ী নাটালি পোর্টম্যান এই পর্বে ফিরছেন জেন ফস্টার চরিত্রে। এবার তিনি হয়ে উঠবেন লেডি থর। ভালকিরি চরিত্রে টেসা টম্পসন এবং লেডি সিফ চরিত্রে জেইমি অ্যালেকজান্ডার ফিরছেন।

বাড়তি পাওনা হিসেবে থাকছেন গার্ডিয়ান অব দা গ্যালাক্সির পাত্র-পাত্রীরা। একটি চরিত্রে থাকবেন ম্যাট ডেমনও।