ফেইসবুক পাতা ‘উদ্ধার’, জিডি করবেন নোবেল

নিজের ফেইসবুক পাতা ‘নোবেল ম্যান’ বেহাত হওয়ার দাবির পরদিন পাতাটি উদ্ধারের দাবি করলেন তরুণ গায়ক মাঈনুল আহসান নোবেল।

শনিবার বিকালে নোবেল বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, তিনি ধারণা করছেন ‘দেশের বাইরে থেকে’ তার পেইজ ‘হ্যাক করা’ হয়েছিল। কিছুক্ষণ আগে সেটি পুরোপুরি তার নিয়ন্ত্রণে এসেছে।

ইতোমধ্যে পাতা থেকে বিতর্কিত সব পোস্ট মুছে ফেলে গুলশান থানায় সাধারণ ডায়েরির প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানালেন এ উঠতি গায়ক।

কীভাবে তা উদ্ধার হল- এমন প্রশ্নে জবাবে বিস্তারিত বলতে রাজি হননি নোবেল।

ভারতের একটি রিয়েলিটি শো থেকে আলোচনায় উঠে আসা নোবেলের ফেইসবুক পাতায় ঈদের আগের রাত থেকে সংগীত তারকা জেমসকে হেয় করে একটির পর একটি বিতর্কিত পোস্ট দেখে অনেকের ভ্রূকুটি ওঠে।

শুক্রবার রাতে নোবেল দাবি করেছিলেন, তিনি ‘হ্যাকিংয়ের শিকার’। পাতাটি উদ্ধারের জন্য ভারতে ফেইসবুকের আঞ্চলিক দপ্তরে যোগাযোগও করেছেন।

শনিবার পাতাটি ‘উদ্ধারের’ পর জেমস ও গীতিকার-সুরকার ইথুন বাবু, শিল্পী তাপসকে নিয়ে বিতর্কিত সব পোস্ট সরিয়ে ফেলেন তিনি। তবে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়কে নিয়ে দেওয়া একটি পোস্ট এখনও পাতায় দেখা যাচ্ছে।

‘হ্যাকিংয়ের’ বিষয়ে কোনো আইনগত ব্যবস্থা নিচ্ছেন কি না? - এ প্রশ্নের জবাবে নোবেল বলেন, “দেশের বাইরে থেকে পেইজ হ্যাক হলে কীইবা ব্যবস্থা নেব।… আমার ফেইসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়েছিল মর্মে থানায় আজ কিছুক্ষণের মধ্যে একটা জিডি করব। আমার বাসা থেকে কিছু হারায়ে গেলেও আমি সাধারণ ডায়েরি করতে পারি।”

তবে নোবেলের ফেইসবুক পেইজ আদৌ হ্যাকারের কবলে পড়েছিল কি না- তা নিয়ে সন্দেহের কথা বলে আসছেন কেউ কেউ।

একজন ফেইসবুকে লিখেছেন, “নোবেল নিজের মিউজিক ভিডিওর প্রচারণার জন্য এই সমস্ত লেইম মার্কা পোস্ট করতেছে। সব শেষে পোস্ট করে বলবে (আমার পেইজ হ্যাক হয়েছে।”

বিতর্কিত পোস্টের জন্য এর আগে গত বছর একবার নোবেলকে র‍্যাব কার্যালয়ে ডেকে নেওয়া হয়েছিল। তখন ক্ষমা চেয়ে তিনি বলেছিলেন, নিজের একটি গানের প্রচারের জন্য ওই কাজ করেছিলেন তিনি।

২০১৯ সালে ভারতের জি-বাংলা টিভির রিয়েলিটি শো ‘সা রে গা মা পা’তে অংশ নিয়ে বাংলাদেশের পাশাপাশি ভারতেও পরিচিতি পান নোবেল; প্রতিযোগিতায় তিনি তৃতীয় হয়েছিলেন।