সুমির কণ্ঠে থিম সং পেল ‘ডাকছে আবার দেশ’

করোনাভাইরাসের কারণে কর্মহীন হয়ে পড়া মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য ‘ডাকছে আবার দেশ’ উদ্যোগের থিম সং উন্মোচন করেছে ব্র্যাক।

বৃহস্পতিবার ভার্চুয়াল আয়োজনে ’আলোয় আলোয় ডাকছে আবার দেশ’ শিরোনামে গানটির উন্মোচন ও আলোচনা সভায় হয়।

ব্যান্ড দল চিরকুটের লিড ভোকালিস্ট শারমিন সুলতানা সুমির কথা, সুর ও কণ্ঠে এর সংগীতায়োজনে আরও ছিলেন একই ব্যান্ডের জাহিদ নীরব।

থিম সং সম্পর্কে সুমি বলেন, “বাংলাদেশ এক অন্ধকার সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। এই গানের মাধ্যমে আমরা বলার চেষ্টা করেছি যে এই সময়ে আমরা যদি যার যার সক্ষমতা অনুযায়ী একে অপরের পাশে দাঁড়াতে পারি তাহলেই এই অন্ধকার দূর করা সম্ভব হবে।”

করোনাভাইরাসের ডেল্টা ধরনের সামাজিক বিস্তার এবং লকডাউনের প্রতিকূল অবস্থায় কর্মহীন হয়ে পড়া দরিদ্র মানুষদের পাশে দাঁড়াতে ১৮ জুলাই থেকে ‘ডাকছে আবার দেশ’ উদ্যোগ শুরু করেছে ব্র্যাক।

প্রথমে ব্র্যাককর্মীদের একদিনের বেতনসহ ব্র্যাকের নিজস্ব তহবিল থেকে মোট সাড়ে সাত কোটি টাকা প্রদান করা হয়েছে, যা দিয়ে ৫০ হাজার পরিবারে জরুরি খাদ্য সহায়তা দিচ্ছে ব্র্যাক।

স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার বিষয়ে উদাসীনতার কথা উল্লেখ করে উন্মোচন অনুষ্ঠানে জাতীয় অধ্যাপক ডা. এ কে আজাদ বলেন, প্রথমত, এই অতিমারিতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার কোনো বিকল্প নেই। দ্বিতীয়ত, সবাইকে অবশ্যই টিকা নিতে হবে। টিকা নেওয়া যেন আরও সহজ হয় এবং টিকা যেন আরও বেশি পরিমাণে দেওয়া যায়, সে বিষয়টিও সংশ্লিষ্টদের নজর রাখতে হবে।

অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে চিত্রনায়িকা মৌসুমী সরকারের উপর নির্ভরশীল না হয়ে, সমাজের তুলনামূলক ভালো অবস্থানে থাকা ব্যক্তিদের যার যার সক্ষমতা অনুযায়ী হতদরিদ্র এবং ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান।

‘ডাকছে আবার দেশ’ উদ্যোগে বিভিন্ন জায়গা থেকে সহযোগিতা এবং অনুপ্রেরণা পাওয়ার কথা অনুষ্ঠানে তুলে ধরেন ব্র্যাকের চিফ ফাইনান্সিয়াল অফিসার তুষার ভৌমিক।

তিনি বলেন, এই বছর গ্রামীণফোন এই উদ্যোগে ৫ কোটি টাকা দিয়েছে এবং বিভিন্ন ব্যাংকও তাদের সিএসআর তহবিল থেকে অনুদান দিয়েছে। নয়টি ব্যাংক এই তহবিলে অনুদানের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

ব্র্যাকের হেড অফ মিডিয়া অ্যান্ড এক্সটার্নাল রিলেশন্স রাফে সাদনান আদেল অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন।