‘বিক্ষোভ’ এ দেখা যাবে না সানি লিওনিকে

ছবি: ফেইসবুক থেকে।
ঢাকাই সিনেমা ‘বিক্ষোভ’-এর একটি আইটেম গানে শুটিং করেছিলেন বলিউড তারকা সানি লিওনি; কিন্তু অনুমতি জটিলতায় ওই গানটি বাদ দিয়েই সেন্সর সনদ নিয়েছে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান শাপলা মিডিয়া।

২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরে ভারতের মুম্বাইয়ে সেট বানিয়ে সানি লিওনিকে নিয়ে ‘বেবি ডল বেবি ডল’ শিরোনামে ওই আইটেম গানের দৃশ্যধারণের খবর দিয়েছিল প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানটি। সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন তরুণ পরিচালক শামীম আহমেদ রনী।

দেশীয় চলচ্চিত্রে বিদেশি শিল্পীকে নিয়ে শুটিংয়ে আগে বাংলাদেশ সরকারের পূর্বানুমতি নেওয়ার নীতিমালা রয়েছে; তবে অনুমতি ছাড়াই ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরে ভারতের মুম্বাইয়ে সানি লিওনিকে নিয়ে গানটির শুটিং করেছে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানটি।

বাংলাদেশের নিয়ম অনুযায়ী, দেশীয় চলচ্চিত্রে বিদেশি অভিনয়শিল্পী, কলাকুশলী, সংগীতজ্ঞ, সংগীতশিল্পীর অংশগ্রহণ করতে হলে আগে সরকারের অনুমতি প্রয়োজন হয়।

শাপলা মিডিয়া বলছে, শুটিংয়ের পরে গানটি নিয়ে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় থেকে অনুমতি না পাওয়ায় তারা গানটি বাদ দিয়েই সিনেমাটি সেন্সর বোর্ডে জমা দিয়েছিল।

আর সেন্সর বোর্ড জানিয়েছে, সপ্তাহ খানেক আগেই সিনেমার প্রযোজককে সেন্সর সনদ দেওয়া হয়েছে। সেখানে সানি লিওনির কোনো আইটেম গান ছিল না।

পরিচালক শামীম আহমেদ রনীর বরাতে বিভিন্ন গণমাধ্যমের খবরে এসেছে, আইটেম গানটির শুটিংয়ের আগে সরকারের অনুমতি নেয়নি শাপলা মিডিয়া।

প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানটির হেড অব প্রোডাকশন অপূর্ব রায় বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, পরে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের তরফ থেকে অনুমতি পাওয়ার চেষ্টা করলেও তা পাওয়া যায়নি। এখন তারা ভাবছেন, আপিল করে আবার তারা গানটি জমা দেবেন।

বিষয়টি নিয়ে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের বক্তব্য জানতে উপসচিব সাইফুল ইসলামকে ফোন করা হলে তার সাড়া পাওয়া যায়নি।

‘বেবি ডল বেবি ডল’ গানে কণ্ঠ দিয়েছিলেন কোনাল ও আকাশ। গানটি লিখেছেন আকাশ ও প্রিয় চট্টোপাধ্যায়।

এ সিনেমায় অভিনয় করেছেন টালিগঞ্জের নায়িকা শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়, উঠতি নায়ক শান্ত খানসহ আরও অনেকে।