‘নোট দিয়ে ভোট কেনার’ অভিযোগ, জায়েদ খানের অস্বীকার

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক পদের প্রার্থী জায়েদ খানের বিরুদ্ধে ভোটারদের টাকা দেওয়ার অভিযোগ তুলেছেন প্রতিদ্বন্দ্বী প্যানেলের প্রার্থী নিপুণ আক্তার।

তবে ওই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে চিত্রনায়ক জায়েদ খান বলেছেন, “এগুলো সম্পূর্ণ মিথ্যা।”

শিল্পী সমিতির নির্বাচনে ভোট চলাকালে শুক্রবার দুপুরের পর জায়েদ খানের বিরুদ্ধে অভিযোগ নিয়ে গণমাধ্যমের সামনে আসেন অভিনেত্রী নিপুণ।

তার অভিযোগ, জায়েদ খান এফডিসির মূল ফটকের পাশে ভোটারদের ‘টাকা দিয়েছেন’। বিষয়টি নিয়ে নির্বাচন কমিশনে মৌখিকভাবে অভিযোগও জানিয়েছেন।

এ সময় তার পাশে থাকা জায়েদ খান অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, “টাকা পয়সার অভিযোগ শুনে আমার নিজেরই লজ্জা লাগছে। শিল্পীরা আসছে আমি ব্যাজ পরিয়ে দিচ্ছি। দ্যাটস ইট।

“কেউ মনে হয় কানে লাগিয়েছে। সেটা শুনে উনি অভিযোগ করলেন। পৃথিবীতে কোনো দিন শুনেছেন, শিল্পীদের কেউ টাকা দেয়? এটা ইতিহাসে কখনও হয়নি।”

নিপুণের অভিযোগের বিষয়ে শিল্পী সমিতির নির্বাচনের প্রধান নির্বাচন কমিশনার পীরজাদা শহিদুল হারুন সাংবাদিকদের বলেন, “টাকা দিয়ে ভোট কেনার বিষয়টি তো প্রমাণ করতে হবে, কোনো ভিডিও করতে হবে। ছবি তুলতে হবে।

“ছবি বা ভিডিও আমাদের হাতে আসেনি বা আমাদের হাতে দেয়নি। যেহেতু দেয়নি, এই অভিযোগকে মিথ্যাও বলব না; অভিযোগ-পালটা অভিযোগ থাকতেই পারে।”

ভোটারদের টাকা দেওয়ার অভিযোগের কোনো প্রমাণ আছে কি না- এমন প্রশ্নে নিপুণ বলেন, “অনেকেই আমাকে জানাচ্ছে। এতগুলো লোক এসে বলতেছে। এতক্ষণ কিচ্ছু বলি নাই, এই জন্য আমি এখানে এসেছি।”

আগামী দুই বছরের জন্য চলচ্চিত্র শিল্পীদের নেতৃত্ব নির্বাচনে শুক্রবার সকাল ৯টা থেকে ভোট দিচ্ছেন শিল্পীরা; ভোট চলবে বিকাল ৫টা পর্যন্ত।

নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে ইলিয়াস কাঞ্চন-নিপুণ প্যানেল ও মিশা সওদাগর-জায়েদ খান প্যানেলে। মোট ভোটারের সংখ্যা ৪২৮ জন।