সংক্রমণ বাড়ায় বিধি মানতে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর অনুরোধ

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক (ফাইল ছবি)
করোনাভাইরাসের সংক্রমণ গত দুই মাসের তুলনায় আবারও বেড়ে যাওয়ায় আশঙ্কা প্রকাশ করে সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার অনুরোধ করেছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

শুক্রবার শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে সাংবাদিকদের সামনে তিনি এই আহ্বান জানান।

গত কয়েকদিনে আক্রান্তের সংখ্যা ও শনাক্তের হার বেড়েছে জানিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, “বাংলাদেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতি ইউরোপের বর্তমান অবস্থার মতো হোক তা সরকার চায় না।”

করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রন অপ্রত্যাশিত গতিতে বিশ্বের ৭৭টি দেশে ছড়িয়ে পড়ার তথ্য জানিয়ে এর চেয়ে বেশি দেশে তা সংক্রমিত হয়েছে বলে সম্প্রতি শঙ্কা প্রকাশ করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

দেশেও নমুনা পরীক্ষার তুলনায় শনাক্ত রোগীর হার দুই মাসের বেশি সময় পর আবারও দুই শতাংশ ছাড়িয়ে গেছে বলে শুক্রবার জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

এসব তথ্য তুলে ধরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, “কোভিড সংক্রমণের হার ফের দুই শতাংশের উপরে উঠেছে, যা এক শতাংশের ঘরে ছিল। এটা আশঙ্কাজনক, গত একদিনেন প্রায় চারশ রোগী নতুন পাওয়া গেছে।

“আমি সবাইকে অনুরোধ করব স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে। নইলে আক্রান্তের সংখ্যাও বেড়ে যাবে, একইভাবে মৃতের সংখ্যাও আশঙ্কাজনকভাবে বেড়ে যাবে।”

জাহিদ মালেক জানান, কোভিড টিকার বুস্টার ডোজ দেওয়ার কার্যক্রম চলমান রয়েছে। সুরক্ষা অ্যাপ আপডেট হয়ে গেলে এই কাজ আরও গতি পাবে। গত রোববার থেকে এ কার্যক্রম শুরু হয়।

এর আগে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, যাদের বয়স ৬০ বছরের বেশি এবং যারা কোভিডের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সামনের সারিতে আছেন, তাদের করোনাভাইরাসের টিকার বুস্টার ডোজ দেওয়া হবে।

টিকার দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার ছয় মাস পর তারা বুস্টার ডোজ বা তৃতীয় ডোজ নিতে পারবেন। সেজন্য নতুন করে নিবন্ধনের প্রয়োজন হবে না। যারা তৃতীয় ডোজ পাওয়ার যোগ্য, তাদের কাছে এসএমএস চলে যাবে।

ঝালকাঠিতে লঞ্চে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় দগ্ধদের দেখতে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে যান স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

এসময় তিনি জানান, দেশে বিভিন্ন কারণে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা বেড়ে যাওয়ায় আহতদের চিকিৎসায় নতুন আটটি বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউট করা হবে। এরমধ্যে পাঁচটি অনুমোদন হয়ে গেছে।

“এগুলোর প্রত্যেকটি স্বয়ংসম্পূর্ণ এবং অত্যাধুনিক ইউনিট হবে যেন রোগীকে আর ঢাকায় আনতে না হয়। উচ্চতর চিকিৎসাও সেখানে করতে পারবে। প্রতিটি হবে ১০০ শয্যার।”

শুক্রবার গভীর রাতে ঝালকাঠির সুগন্ধা নদীতে ঢাকা থেকে বরগুনাগামী অভিযান-১০ লঞ্চে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে বিপুল সংখ্যক হতাহতের ঘটনা ঘটে।

আরও পড়ুন

কোভিড: শনাক্তের হার ফের ২% ছাড়াল  

ওমিক্রন ছড়াচ্ছে ‘অপ্রত্যাশিত গতিতে’, সতর্কতা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার  

ইউরোপে ওমিক্রন ‘ছড়াচ্ছে বিদ্যুৎগতিতে’  

ওমিক্রনে গুরুতর অসুস্থতার ‘ঝুঁকি কম’ হলেও উদ্বেগ ছড়ানোর গতি নিয়ে  

প্রথম বুস্টার ডোজ পেলেন সেই রুনু ভেরোনিকা কস্তা  

অভিযান-১০: বিস্ফোরণের পর লঞ্চে ছড়িয়ে পড়ে আগুন

আরও পড়ুন