পোকার কামড়ের যন্ত্রণা কমানোর পন্থা

পোকার কামড়ের যন্ত্রণা দূর করতে রয়েছে নানান প্রাকৃতিক ও রাসায়নিক উপায়।

জীবনযাপন-বিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে পোকার কামড়ের ব্যথা থেকে দ্রুত বাঁচার উপায় সম্পর্কে জানানো হল।

পরিষ্কারক ব্যবহার: পোকার কামড়ের ব্যথা কমাতে আক্রান্তস্থান সাবান পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। চাইলে এখানে ক্যালামিন ও ‘অ্যান্টি-ইচ’ বা চুলকানো-নাশক লোশন ব্যবহার করতে পারেন। এছাড়াও, হাইড্রোকোর্টিসোন ক্রিম ক্ষত দ্রুত সারাতে সহায়তা করে।

ত্বকে বরফ ব্যবহার: পোকা কামড়ানো স্থানে আরাম অনুভব করতে বরফ ব্যবহার করুন। রক্তনালী সংকুচিত হয়ে যাওয়ার ফলে সৃষ্ট তাপমাত্রা প্রদাহ সৃষ্টি করে। বরফ এটা কমাতে সহায়তা করে। এছাড়াও, এই ঠাণ্ডাভাব ত্বকে আরাম অনুভূত হতে সহায়তা করে। 

‘এসেনশিয়াল’ তেল ব্যবহার: ল্যাভেন্ডার ও টি ট্রি তেল মিশিয়ে আক্রান্ত স্থানে ব্যবহার করা যেতে পারে। এটা ব্যাক্টেরিয়া ও প্রদাহনাশক। যা পোকার কামড়ের জন্য হওয়া অস্বস্তি দূর করতে সহায়তা করে।

প্রদাহনাশক উপকরণ ব্যবহার: ওটমিল চুলকানি, ফোলাভাব ও পোকার কামড়ের জন্য হওয়া লালচেভাব কমায়। অ্যালো ভেরা প্রদাহ নাশক হিসেবে কাজ করে এবং ত্বকে থাকা ক্ষত কমাতে সহায়তা করে। পোকার কামড়ের জন্য হওয়া দাগ কমাতে মধু কার্যকর। এটা চুলকানি ও অস্বস্তি দূর করার পাশাপাশি আক্রতান্ত স্থান আর্দ্র রাখতেও সহায়তা করে।

পোকার কামড় থেকে রক্ষা পাওয়ার উপায়

প্রতিকার অপেক্ষা প্রতিরোধ ভালো। মশা নানা রকমের রোগ যেমন- ম্যালেরিয়া বা ডেঙ্গু বহন করে। ঘরে খুব বেশি পোকামাকড়ের উপদ্রব দেখা দিলে ঘরের চারপাশে ‘বাগ স্প্রে’ ব্যবহার করাতে পারেন। ফলে পোকার আনাগোনা কমবে। প্রাকৃতিক ‘বাগ স্প্রে’ হিসেবে ত্বকে লেবু ও ইউক্যালিপ্টাস তেল ব্যবহার করা উপকারী।

ছবি: রয়টার্স।

আর পড়ুন

মশা তাড়ানোর উপায়  

মশা তাড়ানোর গাছ  

মশার কামড়ের যন্ত্রণা থেকে রক্ষা পেতে  

ছারপোকার কামড়ে ঘরোয়া প্রতিষেধক