ত্বকের স্বাভাবিক উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে আনার পন্থা

ছবির মডেল: মৌ। ছবি: প্রমানিক।
রোদে পুড়ে ত্বকের স্বাভাবিক রং হারালে প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহার করে সহজেই ফিরিয়ে আনা যায় উজ্জ্বলভাব।

শুধু মুখের ত্বক নয়, গলা, ঘাড়, হাত ও শরীরের যেসব অংশ রোদে পুড়ে তামাটে-কালচে হয়ে যায় সেখানেই ব্যবহার করতে হবে প্রাকৃতিক উপাদান।

আর সেই পদ্ধতি দিয়েছেন ভারতের ‘ব্লসোম কোচার গ্রুপ অব কোম্পানিজ’য়ের পরিচালক ব্লসোম কোচার।

টাইমসঅফইন্ডিয়া ডটকম’য়ে প্রকাশিত প্রতিবেদনে তিনি বলেন, “রোদে পোড়াভাব কমাতে টমেটোর পেস্ট খুব ভালো কাজ করে। এটা ত্বকের প্রাকৃতিক তেলের ভারসাম্য বজায় রাখার পাশাপাশি ত্বকের রংয়ের ভারসাম্য বজায় রাখে। আর ত্বকের উজ্জ্বলতা ও তারুণ্য বাড়ায়।”

সূর্যালোক থেকে চুল সুরক্ষিত রাখতে ও উজ্জ্বলতা আনতে এটা চুলেও ব্যবহার করা যায়। 

* এক টেবিল-চামচ গুঁড়া দুধ, এক চিমটি হলুদ গুঁড়া, দুই টেবিল-চামচ মধু ও লেবুর রস মিশিয়ে মিশ্রণ তৈরি করে মুখ ও উন্মুক্ত থাকে এমন স্থানে মেখে শুকানো পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। এরপর ধুয়ে ফেলতে হবে। ফলাফল দ্রুতই চোখে পড়বে।

* ওটস ও ননী তোলা দুধ একসঙ্গে মিশিয়ে মিশ্রণ তৈরি করে নিতে হবে। মিশ্রণটি রোদে পোড়া স্থামে মেখে শুকানো পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হব। এরপর তা আলতোভাবে ঘষে তুলে নিতে হবে। এই প্যাক ত্বক এক্সফলিয়েট করতে খুব ভালো কাজ করে। আর ত্বকে মসৃণভাব আনে।

* সমপরিমাণ সাদা ও কালো জিরা দুধ বা ননির সঙ্গে মিশিয়ে বেটে ঘন পেস্ট তৈরি করে নিন। এই পেস্ট মুখে মেখে বিশ মিনিট অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে দুবার ব্যবহারে ভালো ফলাফল পাওয়া যাবে।

* হাত ও মুখ ধুতে নিয়মিত ডাবের পানি ব্যবহার রোদে-পোড়াভাব কমানোর পাশাপাশি ত্বককে মসৃণ ও কোমল করতেও সহায়তা করে।

 

আরও পড়ুন

ত্বকের মলিনতা দূর করার তিন উপায়  

সাতদিনে উজ্জ্বল ত্বক  

ত্বক পরিচর্যায় তিনটি ভুল ধারণা