কোভিড: দিনে শনাক্ত বাড়লেও হার ‘খানিকটা কম’ ভারতে

কোভিড সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি নিয়ে চিন্তিত ভারতে একদিনে আরও ২ লাখ ৭১ হাজার ২০২ জনের দেহে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

গত ৮ মাসের মধ্যে দেশটিতে এটাই সর্বোচ্চ দৈনিক শনাক্ত।

দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের হিসাবে শনিবার সকাল থেকে রোববার সকাল পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে কোভিডে ৩১৪ জনের মৃত্যুও হয়েছে বলে জানিয়েছে এনডিটিভি।

দৈনিক শনাক্তের ঊর্ধ্বগতি অব্যাহত থাকলেও দেশটিতে শনাক্তের হার খানিকটা কম দেখা যাচ্ছে।

শনিবার দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় নতুন ২ লাখ ৬৮ হাজার ৮৩৩ জনের দেহে প্রাণঘাতী ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়ার কথা জানিয়েছিল; সেদিন পরীক্ষা অনুপাতে শনাক্তের হার ছিল ১৬ দশমিক ৬৬ শতাংশ।

রোববার দেওয়া তথ্যে ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের সংখ্যা আগের ২৪ ঘণ্টার তুলনায় বেশি হলেও শনাক্তের হার ছিল ১৬ দশমিক ২৮ শতাংশ।

মহামারী শুরুর পর ভারতে এখন পর্যন্ত সরকারি হিসাবেই আক্রান্তের সংখ্যা ৩ কোটি ৭১ লাখ ২২ হাজার পেরিয়ে গেছে, এর মধ্যে ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্ট মিলেছে ২৮ রাজ্যের ৭ হাজার ৭৪৩ জনের শরীরে।

দেশটিতে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা এখন মোট সংক্রমণের ৪ দশমিক ১৮ শতাংশ; আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়ে ওঠার হারও কমে দাঁড়িয়েছে ৯৪ দশমিক ৫১ শতাংশে। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে দেশটিতে এক লাখ ৩২ হাজার ৫৫৭ জন সক্রিয় রোগী বেড়েছে বলে ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দেওয়া তথ্যে দেখা যাচ্ছে। 

জনসাধারণের মধ্যে এখন পর্যন্ত মোট ১৫৬ কোটি ৭৬ লাখ ডোজ টিকা দেওয়া হয়েছে বলেও জানিয়েছে তারা।

রোববার যে নতুন ৩১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে, তার এক তৃতীয়াংশই দেখেছে কেরালা। পশ্চিমবঙ্গেও ৩৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। সরকারি হিসাবেই করোনাভাইরাস এখন পর্যন্ত দেশটির ৪ লাখ ৮৬ হাজারের বেশি মানুষের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে।