বিএনপির গণঅভ্যুত্থান ‘দিবা স্বপ্ন’: ওবায়দুল কাদের

সরকার পতনে বিএনপির গণঅভ্যুত্থানের আহ্বানকে ‘দিবা স্বপ্ন’ বলে অভিহিত করেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

ওবায়দুল কাদের। ফাইল ছবি

মঙ্গলবার নিজের সরকারি বাসভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে এমন মন্তব্য করেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী।

ওবায়দুল কাদের বলেন, “৯০ এর পটভূমি আর ২০২১ এর পটভূমি এক নয়, সুতরাং গণ-অভ্যুত্থান করে সরকার পতনের দিবা স্বপ্ন বিএনপির রঙিন খোয়াবে পরিণত হবে।”

সম্প্রতি দলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আলোচনাসভায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সরকার পতনের লক্ষ্যে নেতা-কর্মীদের গণঅভুত্থান গড়ে তোলার জন্য আহ্বান জানিয়েছিলেন।

‘সরকারকে আর সময় দেওয়া যায় না’- মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন বক্তব্যের জবাবে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, “সরকারকে সময় নির্ধারণ করে দেওয়ার উনি কে?

“সরকারকে সময় নির্ধারণ করে দিয়েছে দেশের সংবিধান ও এদেশের জনগণ, আর ক্ষমতা দেওয়ার মালিক সর্ব শক্তিমান আল্লাহ এবং দেশের ভোটারগণ।”

জাতীয় প্রেসক্লাবের ভেতরে বিএনপি ‘রাজনৈতিক সমাবেশ’ করছে দাবি করে এ ধরনে কর্মকাণ্ডকে অবৈধ এবং অগ্রহণযোগ্য বলে দাবি করেছেন ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, “জাতীয় প্রেসক্লাবে সাধারণত সাংবাদিক, সাংস্কৃতিক, সামাজিক ও বিভিন্ন সংগঠন সভার আয়োজন করে থাকে,কিন্তু বিএনপি প্রেসক্লাবকে রাজনৈতিক মঞ্চ বানিয়ে ফেলেছে।”

এসময় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিভিন্ন জেলা থেকে দলীয় প্রার্থীর নাম পাঠানো হচ্ছে জানিয়ে কিছু কিছু ক্ষেত্রে তথ্য গোপন এবং অনিয়ম ও জালিয়াতির তথ্য পাওয়ার কথা জানান আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক।

এ বিষয়ে তিনি সতর্ক করে বলেন, “যারা এ ধরনের অনিয়মের সঙ্গে জড়িত তাদের বিষয়ে খোঁজখবর নেওয়া হচ্ছে, অভিযোগের সত্যতা প্রমাণিত হলে সাথে সাথে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

সংবাদ সম্মেলনে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের জানান, ড্রাইভিং লাইসেন্সের জন্য প্রায় দুই বছরের অপেক্ষা এবং ভোগান্তির পর্ব শেষ হতে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, “প্রিন্টিংয়ের জন্য প্রায় সাড়ে ১২ লাখ ড্রাইভিং লাইসেন্সের প্রিন্টিং ও বিতরণ কার্যক্রম গত ১০ অক্টোবর থেকে শুরু হয়েছে। আগামী ৬ মাসের মধ্যে এসকল ড্রাইভিং লাইসেন্সের প্রিন্টিং ও বিতরণ কাজ শেষ হবে।” 

গ্রাহকের ভোগান্তি কমাতে প্রয়োজনে সাপ্তাহিক ছুটির দিনেও ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রিন্টিং ও বিতরণ কার্যক্রম পরিচালনার জন্য বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ) এবং সংশ্লিষ্ট সকলকে নির্দেশ দেন সড়ক পরিবহনমন্ত্রী। 

গত ১০ অক্টোবর থেকে দুই লেন বিশিষ্ট ভেহিক্যাল ইনস্পেকশন সেন্টার (ভিআইসি) এর একটি লেন থেকে গ্রাহকদের সার্ভিস দেওয়া হচ্ছে এবং অন্য একটি লেনের মেরামত কাজ চলেছে বলেও জানান তিনি। 

“মেরামত কাজ শেষ হলে দুটি লেন থেকেই গ্রাহকদের সার্ভিস দেওয়া হবে।” - বলেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী।