ইউপি ভোট: চতুর্থ ধাপে চেয়ারম্যান পদে ৪৯১৮ প্রার্থী

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের চতুর্থ ধাপের ৮৪০ ইউপিতে চেয়ারম্যান, সাধারণ সদস্য ও সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে সাড়ে ৪৬ হাজার প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

এ ধাপের মনোনয়নপত্র জমার শেষ সময় ছিল বৃহস্পতিবার। নির্বাচন কমিশনের জনসংযোগ পরিচালক যুগ্মসচিব এস এম আসাদুজ্জামান শুক্রবার মাঠপর্যায়ের একীভূত তথ্য প্রকাশ করেন।

তিনি জানান, চতুর্থ ধাপে চেয়ারম্যান পদে ৪৯১৮ জন, সাধারণ সদস্য পদে ৩১ হাজার ৭০৪ জন ও সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ৯ হাজার ৮৫০ জন মনোনয়নপত্র জমা দেন। এই হিসাবে প্রতি ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে গড়ে ৫ জনের বেশি করে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

দলীয় প্রতীকের এ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ১৭টি দল অংশ নিচ্ছে। ৮৪০ ইউপির মধ্যে আওয়ামী লীগের নৌকার প্রার্থী রয়েছে ৮০৯ ইউপিতে।

ইসির জনসংযোগ পচিালক জানান, চেয়ারম্যানর পদে দলীয় প্রার্থী রয়েছেন ১ হাজার ৩৭২ জন ও স্বতন্ত্র প্রার্থী রয়েছেন ৩ হাজার ৫৪৬ জন।

এ ধাপে ১৩ জন একক প্রার্থী চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এর মধ্যে ক্ষমতাসীন দলের ১২ জন ও স্বতন্ত্র প্রার্থী রয়েছেন একজন।

ইউপি নির্বাচনে বিনা ভোটে পারের রেকর্ড  

ইউপি ভোট: তৃতীয় ধাপে চেয়ারম্যান পদের ৫ গুণ মনোনয়ন জমা  

চতুর্থ ধাপের ইউপি ভোট পিছিয়ে ২৬ ডিসেম্বর  

আড়াইহাজারের ফতেপুর, দুপ্তারা, ব্রাহ্মন্দী, মাহমুদপুর; লৌহজংয়ের মেদিনীমণ্ডল; কামারখন্দের ঝাঐল; সিংড়ার শেরকোল; পটিয়ার বড়লিয়া; লোহাগাড়ার বড়হাতিয়া; রাজবাড়ীর বানীবহ ও কোটালীপাড়ার আমতলী এবং কুমিল্লার শ্রীপুরের আওয়ামী লীগের প্রার্থীদের কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী নেই। আর কুমিল্লার পাঁচমুখীতে কেবল একজন স্বতন্ত্র প্রার্থী রয়েছেন।

বাছাইয়ে বৈধ প্রার্থী হলে তারা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচন হবেন। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের সময় শেষে একক প্রার্থীর সংখ্যা আরও বাড়তে পারে।

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, ২৯ নভেম্বর মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের পর ৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত প্রত্যাহার করা যাবে। ভোট হবে ২৬ ডিসেম্বর।

চতুর্থ ধাপে ৩৩ ইউনিয়ন পরিষদে ইভিএমে ভোট নেওয়া হবে; বাকিগুলোয় ভোট হবে প্রচলিত ব্যালট পেপারে।