দুই দলের ‘লবিস্ট নিয়োগ’ নিয়ে সংসদে তথ্য দাবি দুই এমপির

আওয়ামী লীগ ও বিএনপি আসলেই যুক্তরাষ্ট্রে ‘লবিস্ট’ নিয়োগ করেছে কি না, করে থাকলে কোন দল কত টাকা খরচ করেছে, ওই টাকা কোথা থেকে খরচ করা হয়েছে তার সুনির্দিষ্ট তথ্য জাতীয় সংসদে উপস্থাপনের দাবি জানিয়েছেন দুই সাংসদ।

রোববার জাতীয় সংসদে অনির্ধারিত আলোচনায় অংশ নিয়ে জাতীয় পার্টির মুজিবুল হক চুন্নু ও বিএনপির হারুনুর রশীদ এ দাবি জানান।

তাদের বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, সোমবার জাতীয় সংসদে তিনি এ বিষয়ে বক্তব্য দেবেন।

বিএনপি যুক্তরাষ্ট্রে লবিস্ট নিয়োগ করেছে, সংসদে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলমের এমন বক্তব্যের বিষয়ে মুজিবুল হক চুন্নু বলেন, “পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলেছেন, বিএনপি গত তিন বছরে যুক্তরাষ্ট্রে লবিস্টের পেছনে ৩২ কোটি টাকা খরচ করেছে। কী কারণে তারা এই লবিস্ট নিয়োগ দিয়েছিল? এটা কী দেশের জনগণের স্বার্থে? রাষ্ট্রের স্বার্থে? নাকি জনগণের স্বার্থের বিরুদ্ধে? এই বিষয়টি ক্লিয়ার হয়নি।

ফাইল ছবি

“পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বক্তব্যের পর বিএনপির একজন নেতা সাংবাদিক সম্মেলনে বলেছেন, ক্ষমতাসীন দল ২০১৪ সাল থেকে লবিস্ট নিয়োগ করে আসছে। তিনি বলেছেন, ক্ষমতাসীন দল লবিস্টের পেছনে তিন লাখ ২০ হাজার ডলার বা ৩০ কোটি টাকা প্রতি বছর খরচ করে আসছে। ক্ষমতাসীন দল আসলে লবিস্ট নিয়োগ করেছিল? কী কারণে করেছিলেন? এই টাকা কী সরকারের কোষাগার থেকে গেছে? নাকি দলের নিজস্ব সোর্স থেকে গেছে?”

লবিস্টের জন্য ২ মিলিয়ন ডলার বিএনপি পেল কোথায়, তদন্ত চান শাহরিয়ার  

বিএনপির বিষয়ে একই দাবি তুলে চুন্নু বলেন, “দেশের মানুষ এবং আমরাও জানতে চাই- বিএনপি লবিস্ট নিয়োগের টাকা কোত্থেকে পেল? ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগও লবিস্ট নিয়োগ করেছিলেন কি না, করলে তার ফান্ড কোত্থেকে পেল? সার্বিক বিষয়ে নিরপেক্ষ সংস্থার তদন্ত বা সরকারের একটি বিবৃতি জানতে চাই। দেশের মানুষকে এটা জানানো হোক।”

গত ১৭ জানুয়ারি সংসদে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী দাবি করেন, তিন বছরে যুক্তরাষ্ট্রের একটি লবিস্ট ফার্মের পিছনে বিএনপি দুই মিলিয়ন মার্কিন ডলার ব্যয় করেছে।

বিএনপি সরকারের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রে কত টাকা খরচ করেছে, তার হিসাব সরকারের কাছে রয়েছে বলে দাবি করেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী।

রোববার অনির্ধারিত আলোচনায় বিএনপির হারুনুর রশীদ বলেন, “অনুমান নির্ভর বক্তব্য উপস্থাপন করা ঠিক নয়। ১২টি আন্তর্জাতিক সংস্থা জাতিসংঘকে নোটিস করেছে র‌্যাবকে শান্তিরক্ষা মিশনে না নিতে। সেটার কী অবস্থা, যুক্তরাষ্ট্র যে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে সেটার কী অবস্থা।”

বিএনপি আসলে যুক্তরাষ্ট্রে লবিস্ট নিয়োগ করেছে কি না, আওয়ামী লীগ করেছে কি না, এসব বিষয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ‘সুস্পষ্টভাবে উল্লেখ করবেন’ বলেও তিনি আশা করেন।