বাহরাইনে ফিরতে পারবেন আটকে পড়া প্রবাসীরা

– বাহরাইন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর, ছবি: রয়টার্স
করোনাভাইরাসের প্রকোপে ফ্লাইট বন্ধ থাকায় ছুটিতে বা বিভিন্ন কাজে বাংলাদেশে গিয়ে আটকে পড়া প্রবাসীদের অবশেষে বাহরাইনে আসার অনুমতি দিয়েছে দেশটির সরকার।

শনিবার দেশটির রাজধানী মানামায় অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাস এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ খবর জানায়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, “বৃহস্পতিবার বাহরাইন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও করোনাভাইরাস প্রতিরোধে গঠিত জাতীয় কমিটির নতুন সিদ্ধান্ত মোতাবেক ১০ অক্টোবর থেকে বাংলাদেশসহ আরও ১০টি দেশকে লাল তালিকা (রেড লিস্ট) থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে।

“১০ অক্টোবরের পর বাহারাইনের উদ্দেশ্যে ভ্রমণকারী যাত্রীদের মধ্যে যারা বাহারাইনে বা গালফ কান্ট্রিতে অথবা যে সব দেশের সঙ্গে বাহরাইনের ভ্যাকসিন রেকোগ্নিশন চুক্তি রয়েছে সেখানে ভ্যাকসিন নিয়েছেন, তাদের ভ্রমণের আগে পিসিআর টেস্ট করাতে হবে না। পাশাপাশি ১০ দিনের হোম-কোয়ারেন্টাইন-এর জন্য হোটেল বুকিং দেখাতে হবে না। বাহরাইন বিমানবন্দরে অবতরণের পর তাদেরকে করোনাভাইরাস টেস্ট করানো হবে এবং আগমনের পঞ্চম দিন ও দশম দিনে পুনরায় দুটি টেস্ট করাতে হবে। এ তিনটি টেস্টের জন্য যাত্রীকে ৩৬ বাহরাইন দিনার পরিশোধ করতে হবে।”

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, “যেসব ভ্রমণকারী উপরে বর্ণিত টাইপের ভেতরে পড়েন না, তাদের ক্ষেত্রে আগে ঘোষিত সব নিয়ম যথারীতি বহাল থাকবে। ভ্রমণের ৭২ ঘণ্টার মধ্যে সম্পন্নকৃত পিসিআর নেগেটিভ সার্টিফিকেট (কিউআর কোড সম্বলিত) দেখাতে হবে। পাশাপাশি অবতরণের পর বিমানবন্দরে ও পঞ্চম এবং দশম দিনে মোট ৩টি টেস্টের জন্য ৩৬ দিনার দিতে হবে এবং দশ দিন হোম-কোয়ারেন্টাইন সময়কাল যাপনের জন্য বাহরাইন সরকার কর্তৃক নির্ধারিত হোটেল অথবা নিজস্ব চুক্তিকৃত বাসায় দশ দিন হোম-কোয়ারেন্টাইন পালনের প্রমানপত্র দেখাতে হবে।”

প্রবাস পাতায় আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাস জীবনে আপনার ভ্রমণ,আড্ডা,আনন্দ বেদনার গল্প,ছোট ছোট অনুভূতি,দেশের স্মৃতিচারণ,রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক খবর আমাদের দিতে পারেন। লেখা পাঠানোর ঠিকানা probash@bdnews24.com। সাথে ছবি দিতে ভুলবেন না যেন!