ইতিহাস গড়ে কোচ ক্রেসপোর আগমনী বার্তা

প্রথম সারির ফুটবলে মাত্র ছয় বছরের পথচলায় ক্লাব ফুটবলে লাতিন আমেরিকার দ্বিতীয় সেরা প্রতিযোগিতা কোপা সুদামেরিকানার শিরোপা জিতল দেফেন্সা ইয়া জাস্তিসিয়া। তাদের অবিশ্বাস্য সাফল্যের মধ্য দিয়ে যেন ফুটবলের ডাগআউটে নিজের আগমণী বার্তা দিলেন দলটির কোচ, এক সময়ের তারকা ফরোয়ার্ড এরনান ক্রেসপো।

গত শনিবারের ফাইনালে স্বদেশি ক্লাব লানুসকে ৩-০ গোলে হারায় ক্রেসপোর দল। দায়িত্ব নেওয়ার এক বছরের কম সময়ে অখ্যাত ক্লাবটিকে মহাদেশীয় শিরোপা এনে দিয়ে ইতিহাসের অংশ হয়ে গেলেন তিনি।

রিভার প্লেটের হয়ে পেশাদার খেলোয়াড়ি জীবন শুরু করা ক্রেসপো ক্যারিয়ারের বেশির ভাগ সময় কাটান ইতালিতে। খেলেন পার্মা, লাৎসিও, এসি মিলান ও ইন্টার মিলানের হয়ে।

তার কোচিং ক্যারিয়ারের শুরুটাও ইতালিরই এক উপদ্বীপ মোদেনায়। সেখানে সুবিধা করতে না পেরে যোগ দেন আর্জেন্টিনার দল বানফিল্দে। সেখানেও হতাশাজনক ছোট্ট অধ্যায় শেষ করে যোগ দেন প্রতিবেশি ক্লাব জাস্তিসিয়ায়। এরপর নতুন গতি পায় তার পথচলা।

এরনান ক্রেসপোর দল দেফেন্সা ইয়া জাস্তিসিয়ার কোপা সুদামেরিকানা জয় উদযাপন।

উল্লেখ করার মতো ইতিহাস জাস্তিসিয়ার নেই। শক্ত অবকাঠামো ও প্রতিষ্ঠিত এক খেলার ধরণ নিয়ে ২০১৪ সালে প্রথমবারের মতো দলটি উঠে আসে শীর্ষ লিগে। 

দলটির উঠে আসায় ভূমিকা ছিল আগের দুই কোচ আরিয়েল হোলান ও সেবাস্তিয়ান বেকাসেসের। তাদের রেখে যাওয়া ধারাই এগিয়ে নিচ্ছেন ক্রেসপো।

ব্রাজিলের দল সান্তোসের বিপক্ষে ম্যাচের শেষ মিনিটে গোল খেয়ে লাতিন আমেরিকার শীর্ষ ক্লাব ফুটবল প্রতিযোগিতা কোপা লিবের্তাদোরেস থেকে বিদায় নিয়ে ক্রেসপোর দল জায়গা পায় কোপা সুদামেরিকানায়। এরপর প্রতিযোগিতাটির ইতিহাসে কেবল পঞ্চম দল হিসেবে আপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হলো তারা।

জাস্তিসিয়াকে সাফল্যের মুকুট পরিয়ে কোচ হিসেবে বিশ্ব ফুটবলের নজর কাড়লেন ক্রেসপো। এখন তার ওপর নজর পড়তে পারে ইউরোপের বড় লিগের দলগুলোর।