রিয়াল মাদ্রিদ ছাড়ছেন রামোস

রিয়াল মাদ্রিদে সের্হিও রামোসের অনিশ্চিত ভবিষ্যৎ নিয়ে শোনা যাচ্ছিল নানা গুঞ্জন। সেটিই সত্যি হলো, এলো আনুষ্ঠানিক ঘোষণা। ইউরোপের সফলতম দলটির সঙ্গে দীর্ঘ ১৬ বছরের সম্পর্কের ইতি টানতে যাচ্ছেন এই স্প্যানিশ ডিফেন্ডার।

মাদ্রিদের ক্লাবটি বুধবার রাতে ক্লাবের ওয়েবসাইটে জানায়, বৃহস্পতিবার সংবাদ সম্মেলনে অধিনায়ককে বিদায় জানাবে তারা।

আগামী ৩০ জুন শেষ হবে রিয়ালের সঙ্গে রামোসের চুক্তির মেয়াদ। নতুন চুক্তির ব্যাপারে দুই পক্ষ সমঝোতায় আসতে পারেনি।

মার্কার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ১০ শতাংশ বেতন কমানোসহ ৩৫ বছর বয়সী এই ফুটবলারকে এক বছরের চুক্তির প্রস্তাব দিয়েছিল ক্লাব। তিনি চেয়েছিলেন দুই বছরের চুক্তি। 

২০০৫ সালে শৈশবের ক্লাব সেভিয়া থেকে দুই কোটি ৭০ লাখ ইউরো ট্রান্সফার ফিতে রিয়ালে যোগ দেন রামোস। ওই সময়ে যা কোনো স্প্যানিশ ডিফেন্ডারের জন্য রেকর্ড ট্রান্সফার ফি।

সান্তিয়াগো বের্নাবেউয়ে তিনি নিজেকে পরিণত করেন তার প্রজন্মের সেরা সেন্ট্রাল ডিফেন্ডারদের একজন হিসেবে। গোল করার ক্ষেত্রেও দেখান দক্ষতা। ২০১৪ চাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনালে তার ৯৩তম মিনিটের গোলেই সমতায় ফিরেছিল রিয়াল। অতিরিক্ত সময়ে গড়ানো ম্যাচে আতলেতিকো মাদ্রিদকে ৪-১ গোলে হারিয়ে প্রতিযোগিতাটিতে রিয়াল জিতেছিল নিজেদের দশম শিরোপা, যা পরিচিতি পায় ‘লা দেসিমা’ নামে।  

সব মিলিয়ে রিয়ালের হয়ে ৬৭১ ম্যাচে রামোসের গোল ১০১টি। তাদের হয়ে দীর্ঘ পথচলায় ৪টি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ, ৪টি ক্লাব বিশ্বকাপ, ৫টি লা লিগাসহ তিনি জিতেছেন মোট ২২টি শিরোপা, পাকো গেন্তোর (২৩) পর যা দ্বিতীয় সর্বোচ্চ।

তবে ২০২০-২১ মৌসুমটা তার কিংবা দলের ভালো কাটেনি। শিরোপাশূন্য মৌসুম শেষ করে রিয়াল আর দুই দফা চোটে মৌসুমের দ্বিতীয়ভাগে অনেক গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ খেলতে পারেননি তিনি।

একই কারণে চলতি ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপেও স্পেন দলে অনুপস্থিত রামোস।