টোকিও অলিম্পিকস: একদিনে রেকর্ড ২৪ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত

টোকিও অলিম্পিকসে করোনাভাইরাসের থাবা প্রতিদিন বেড়েই চলেছে। আয়োজকদের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে নতুন করে আরও ২৪ জন কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়েছেন, যা এই আসরে একদিনে সর্বোচ্চ।

সবমিলিয়ে এখন পর্যন্ত অলিম্পিকে গেমসের সাথে সম্পৃক্ত ১৯৩ জন এই প্রাণঘাতী ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার শনাক্ত হওয়া ২৪ জনের মধ্যে রয়েছেন তিন জন অ্যাথলেট।

যুক্তরাষ্ট্রের দুইবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন পোল ভল্টার স্যাম কেনড্রিক্স করোনাভাইরাসের আক্রান্ত হয়ে ছিটকে গেছেন টোকিও অলিম্পিক থেকে। তার সঙ্গে অনুশীলন করা অস্ট্রেলিয়ার কার্টিস মার্শালসহ দেশটির মোট ৬৩ অ্যাথলেটকে আইসোলেশনে পাঠানো হয়েছিল। পরে পরীক্ষার ফল নেগেটিভ আসা সাপেক্ষে সবাইকে অনুশীলনে ফেরার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

গেমস ভিলেজে এখন পর্যন্ত করোনা পজিটিভ হয়েছেন ২৩ জন।

আয়োজকদের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, সোমবার পর্যন্ত বিভিন্ন দেশ থেকে ৩৮ হাজার ৪৮৪ জন জাপানে এসেছেন গেমসের জন্য।

অলিম্পিকের আয়োজক শহরে সাম্প্রতিক সময়ে করোনাভাইরাসের প্রকোপ ছাড়িয়ে গেছে আগের সব রেকর্ড। প্রথমবারের মত বুধবার ও বৃহস্পতিবার পরপর দুইদিন আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়ে গেছে তিন হাজারের বেশি। আসর শুরুর আগে থেকেই অলিম্পিক আয়োজনের বিরোধিতা করে আসছেন জাপানের নাগরিকরা।

তবে টোকিওতে করোনাভাইরাসের প্রকোপ বেড়ে যাওয়ার সঙ্গে অলিম্পিকের কোনো যোগসূত্র খুঁজে পাচ্ছেন না আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির (আইঅসি) মুখপাত্র মার্ক অ্যাডামস।

“আমি যতদূর জানি, অ্যাথলেট কিংবা অলিম্পিকের কোনো কর্মকাণ্ড দ্বারা টোকিওতে একটি কেসও ছড়ায়নি। সম্ভবত পৃথিবীতে আমরাই সবচেয়ে বেশি পরীক্ষা করা সম্প্রদায়…তার ওপরে অ্যাথলেটদের ভিলেজে রয়েছে সবচেয়ে কঠিনতম কিছু বিধিনিষেধের লকডাউন।”