বিশ্বরেকর্ড গড়ে সোনা পেলেন শুনমাকের

দিন তিনেক আগে এক ইভেন্টের হিটে অলিম্পিক রেকর্ড গড়েও মূল লড়াইয়ে প্রাপ্তি ছিল রুপা। সেই হতাশা পেছনে ফেলে এবার অন্য ইভেন্টে নিজেকে নতুন উচ্চতায় তুলে নিলেন তাতিয়ানা শুনমাকের। টোকিওর নীল জলে সোনালি আভা তো ছড়ালেনই, দক্ষিণ আফ্রিকার এই সাঁতারু গড়লেন বিশ্বরেকর্ডও।

টোকিও অলিম্পিকসে মেয়েদের ২০০ মিটার ব্রেস্টস্ট্রোকে সোনা জয়ের পথে এই কীর্তি গড়েন শুনমাকের।

টোকিও অ্যাকুয়াটিকস সেন্টারে শুক্রবার ২ মিনিট ১৮ দশমিক ৯৫ সেকেন্ড সময় নিয়ে রিক্কে মোলার পেদারসেনের রেকর্ড নিজের করে নেন শুনমাকের।

২০১৩ সালের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন্সশিপসে ২ মিনিট ১৯ দশমিক ১১ সেকেন্ড টাইমিং করে বিশ্বরেকর্ড গড়েছিলেন ডেনমার্কের পেদারসেন।

এবারের অলিম্পিকে সাঁতার থেকে দক্ষিণ আফ্রিকাকে প্রথম পদক এনে দিলেন শুনমাকের। গত মঙ্গলবার ১০০ মিটার ব্রেস্টস্ট্রোকের হিটে অলিম্পিকের রেকর্ড গড়ার পর পদকের লড়াইয়ে দ্বিতীয় হয়েছিলেন ২৪ বছর বয়সী এই সাঁতারু।

শুনমাকেরের ইতিহাস গড়ার ইভেন্টে রুপা জেতেন ‍যুক্তরাষ্ট্রের লিলি কিং, ২ মিনিট ১৯ দশমিক ৯২ সেকেন্ড টাইমিং নিয়ে। ১৫০ মিটার পর্যন্ত এগিয়ে ছিলেন কিং, পরে দারুণ ক্ষীপ্রতায় এগিয়ে সেরা হন শুনমাকের।

ব্রোঞ্জ পান কিংয়ের স্বদেশি অ্যানি লেজর (২ মিনিট ২০ দশমিক ৮৪ সেকেন্ড)।