মেসির হাঁটুতে চোট

পিএসজির ঘরের মাঠে প্রথম ম্যাচে হাঁটুতে চোট পেয়েছেন লিওনেল মেসি। অনুশীলন না করে এই আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড চিকিৎসা নিয়েছেন। দলের পরের ম্যাচে মেসের বিপক্ষে খেলতে পারবেন না তিনি।

পাক দি ফ্রাঁসে গত রোববার লিগ ওয়ানে লিঁওর বিপক্ষে ম্যাচে ৭৫তম মিনিটে মেসিকে তুলে নেন কোচ মাওরিসিও পচেত্তিনো। পরে পিএসজির এই আর্জেন্টাইন কোচ জানান, খেলোয়াড়ের ভালোর জন্যই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তিনি।

পিএসজি মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে জানায়, এমআরআই স্ক্যানে মেসির হাঁটুতে চোটের আভাস মিলেছে। ৪৮ ঘণ্টা পরে আরেকটি স্ক্যানের কথা জানিয়েছে লিগ ওয়ানের ক্লাবটি।

লিঁওর বিপক্ষে ২-১ গোলে পিএসজির জেতা ম্যাচে বাঁ হাঁটু নিয়ে মেসিকে কিছুটা অস্বস্তিতে দেখা যায়। তবে আঙুলের ইশারায় তিনি খেলা চালিয়ে যেতে চাওয়ার কথা বলেন।

তারপরও কোচ পচেত্তিনো উঠিয়ে নেন মেসিকে। কোচের সিদ্ধান্তে মেসিকে অবাক ও খানিকটা হতভম্ব দেখা যায়। মাঠ ছাড়ার সময় খুব একটা সন্তুষ্ট মনে হয়নি তাকে। পরে পিএসজি কোচ অবশ্য দাবি করেন, এই সিদ্ধান্ত নিয়ে মেসির তেমন কোনো সমস্যা নেই।

গণমাধ্যমের খবর, সোমবার অনুশীলন সেশনে মেসি কেবল চিকিৎসাই নিয়েছেন। লিগ ওয়ানে মেসের বিপক্ষে ম্যাচ সামনে রেখে পচেত্তিনো আবারও জানালেন লিওঁ ম্যাচে তাকে তুলে নেওয়ার কারণ।

“যখন আপনি সাইড লাইনে থাকবেন, তখন বিষয়গুলো দেখতে পাবেন। আমরা দেখলাম মেসি তার হাঁটুতে হাত বোলাচ্ছে, যার মানে হচ্ছে, সে নিজেই হাঁটুর অবস্থা পরখ করছিল। প্রথম মিনিট থেকে সে যা খেলেছে, তাতে আমরা খুশি, সে গোল পায়নি, ৭৫ মিনিট পর আমাদের কাছে যে তথ্য ছিল, সে অনুযায়ী তাকে আমরা তুলে নিয়েছিলাম।”

সামনে পিএসজির ব্যস্ত সূচি রয়েছে। আগামী বুধবার মেস ও রোববার মোঁপেলিয়ের বিপক্ষে ম্যাচ রয়েছে তাদের। এরপর আগামী ২৯ সেপ্টেম্বর চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ম্যানচেস্টার সিটির বিপক্ষে লড়াইয়ে নামবে তারা।