বের্নাবেউয়ে রিয়ালকে রুখে দিল ওসাসুনা

ঘরের মাঠে খেলতে নামলেই যেন পথ হারিয়ে ফেলছে রিয়াল মাদ্রিদ। ওসাসুনার বিপক্ষে নিজেদের সেভাবে মেলে ধরতে পারলেন না বেনজেমা-ভিনিসিউসরা। দেড় দশক পর তাদের মাঠ থেকে পয়েন্ট নিয়ে ফিরল সফরকারী দলটি।

সান্তিয়াগো বের্নাবেউয়ে বুধবার রাতে লা লিগার ম্যাচটি গোলশূন্য ড্র করেছে কার্লো আনচেলত্তির দল।

সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে নিজেদের মাঠে টানা তিন ম্যাচে জয়হীন রইল রিয়াল। গত মাসে এখানে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে শেরিফ তিরাসপুলের বিপক্ষে তারা হেরেছিল ২-১ গোলে। তার আগে ঘরোয়া লিগে গোলশূন্য ড্র করেছিল ভিয়ারিয়ালের সঙ্গে।

এই মাসের আন্তর্জাতিক বিরতির পর চ্যাম্পিয়ন্স লিগে শাখতার দোনেৎস্কোর মাঠে ৫-০ গোলে ও গত রোববার ক্লাসিকোয় কাম্প নউয়ে বার্সেলোনার বিপক্ষে ২-১ গোলে জিতে ঘুরে দাঁড়ায় রিয়াল। কিন্তু ঘরের মাঠে ফিরেই আবার বিবর্ণ তারা।

বল দখলে যথারীতি আধিপত্য করে রিয়াল। গোলের উদ্দেশে ১৭টি শট নেয় তারা। এর মাত্র তিনটি ছিল লক্ষ্যে। আর ওসাসুনার সাত শটের কোনোটিই লক্ষ্যে ছিল না। দুই দলেরই একটি করে প্রচেষ্টা বাধা পায় পোস্ট কিংবা ক্রসবারে।

ম্যাচের শুরুটা হয় ঢিমেতালে। প্রথম ১৫ মিনিটে গোলের জন্য শটই নিতে পারেনি কোনো দল।

২২তম মিনিটে প্রথম উল্লেখযোগ্য সুযোগ পায় রিয়াল। আলগা বল পেয়ে মার্কো আসেনসিও পাস দেন এদুয়ার্দো কামাভিঙ্গাকে। তবে বল পাশের জালে মারেন ফরাসি মিডফিল্ডার। দুই মিনিট পর সুযোগ আসে আরেকটি। ভিনিসিউস জুনিয়রের বাড়ানো বল পেয়ে উড়িয়ে মেরে হতাশ করেন দানি কারভাহাল।

৩০তম মিনিটে দূর থেকে গোলরক্ষক বরাবর শট করেন এদের মিলতাও। পরের মিনিটে দুরূহ কোণ থেকে দুই খেলোয়াড়ের মাঝ দিয়ে ভিনিসিউসের দূরের পোস্টে নেওয়া শট সামান্য বাইরে দিয়ে যায়।

প্রথমার্ধে তেমন কোনো সুযোগ তৈরি করতে না পারা ওসাসুনা দ্বিতীয়ার্ধের পঞ্চম মিনিটে এগিয়ে যেতে পারত। পাল্টা আক্রমণে উঠে ডান দিক থেকে নিচু ক্রস বাড়ান আভিলা। কাছ থেকে মনকায়োলার প্রচেষ্টা লাগে পোস্টে। বেঁচে যায় রিয়াল।

৬২তম মিনিটে ভালো একটি সুযোগ পান প্রথমার্ধে নিজের ছায়া হয়ে থাকা করিম বেনজেমা। কিন্তু ফরাসি এই ফরোয়ার্ডের জোরালো শটে বল ক্রসবার ও পোস্টের মিলনস্থলে লাগে।

৬৯তম মিনিটে একসঙ্গে তিনটি পরিবর্তন আনেন রিয়াল কোচ আনচেলত্তি। আসেনসিও, কারভাহাল ও ফেরলঁদ মঁদিকে তুলে নামান এদেন আজার, মার্সেলো ও লুকাস ভাসকেসকে। তবে বাকি সময়ে ব্যবধান গড়ে দেওয়ার মতো কিছু করতে পারেননি কেউই।

পয়েন্ট হারালেও তালিকার শীর্ষে উঠেছে রিয়াল। ১০ ম্যাচে ছয় জয় ও তিন ড্রয়ে তাদের ২১ পয়েন্ট।

সমান পয়েন্ট নিয়ে পরের তিনটি স্থানে আছে সেভিয়া, রিয়াল বেতিস ও রিয়াল সোসিয়েদাদ। বেতিস এক ম্যাচ বেশি খেলেছে।

দিনের আরেক ম্যাচে রায়ো ভাইয়েকানোর বিপক্ষে ১-০ গোলে হারা বার্সেলোনা ১০ ম্যাচে ১৫ পয়েন্ট নিয়ে ৯ নম্বরে আছে।