নতুন কোচ ‘পেয়ে গেছে’ ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড

ইউরোপের বেশ কয়েকটি সংবাদমাধ্যমে আগের দিনই প্রায় নিশ্চিত করে বলে দেওয়া হয়, মৌসুমের বাকি সময়ের জন্য ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে কোচ হতে যাচ্ছেন লোকোমোতিভ মস্কোর ‘স্পোর্টস অ্যান্ড ডেভলপমেন্ট’-এর প্রধান রালফ রাংনিক। এ বিষয়ে রাশিয়ান ক্লাবটির সঙ্গেও ইউনাইটেড সমঝোতায় পৌঁছেছে বলে শুক্রবার রাতে বিবিসি জানিয়েছে।

রাংনিকের সঙ্গে চুক্তি অবশ্য এখনও চূড়ান্ত হয়নি ওল্ড ট্যাফোর্ডের ক্লাবটির। চুক্তির কিছু শর্তে দুই পক্ষের সমঝোতায় আসার পাশাপাশি রাংনিকের ‘ওয়ার্ক পারমিটও’ পেতে হবে।

দলের টানা ব্যর্থতার দায়ে গত রোববার ইউনাইটেডের কোচের পদ থেকে চাকরি হারান উলে গুনার সুলশার। ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে জোসে মরিনিয়োর বিদায়ের পর অন্তর্বর্তীকালীন কোচ হিসেবে দলটির হাল ধরেছিলেন নরওয়ের সাবেক এই ফুটবলার।

তার রেখে যাওয়া শূন্যস্থানে আপাতত দায়িত্ব পালন করছেন ম্যাইকেল ক্যারিক। সেখানে অন্তর্বর্তীকালীন কোচ হিসেবে রাংনিকের যোগ দেওয়াটা এখন কেবলই সময়ের ব্যাপার বলে ধারণা করা হচ্ছে।

বিবিসির প্রতিবেদন মতে, রাংনিক চলতি মৌসুমের শেষ পর্যন্ত ইউনাইটেডের কোচ হিসেবে থাকবেন। এরপর দুই বছর ক্লাবটির পরামর্শক হিসেবে কাজ করবেন ৬৩ বছর বয়সী এই জার্মান।

আগামী রোববার প্রিমিয়ার লিগে চেলসির মুখোমুখি হবে ইউনাইটেড। গুরুত্বপূর্ণ এই ম্যাচে অবশ্য তাদের ডাগআউটে রাংনিককে পাওয়ার কোনো সুযোগ নাই। আগের ম্যাচের মতো দায়িত্বে থাকবেন ক্যারিক।

মস্কোয় যাওয়ার আগে কোচ হিসেবে বড় কোনো সাফল্য না থাকলেও খুব একটা খারাপও করেননি রাংনিক। ২০১১ সালে শালকের হয়ে জিতেছিলেন জার্মান কাপ। ওই ২০১০-১১ মৌসুমেই দলটিকে তুলেছিলেন চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমি-ফাইনালে।

তার কোচিংয়েই ২০১৯ জার্মান কাপের ফাইনালে উঠেছিল জার্মান ফুটবলে নতুন সম্ভাবনা দল লাইপজিগ।