জুলাইয়ে রিয়ালের ‘বিশাল পরিকল্পনা’

গত কয়েক বছরে তেমন কোনো তারকাকে দলে টানতে দেখা যায়নি রিয়াল মাদ্রিদকে। গত গ্রীষ্মে কিলিয়ান এমবাপেকে কেনার চেষ্টা করলেও সফল হয়নি তারা। তবে আগামী গ্রীষ্মে দলটি আঁটঘাট বেঁধেই নামতে যাচ্ছে বলে আভাস দিলেন কোচ কার্লো আনচেলত্তি।

ইতালিয়ান এই কোচ জানালেন, ২০২২-২৩ মৌসুমের আগের দলবদলে ব্যস্ত সময় পার করতে যাচ্ছেন এর আগে রিয়ালকে তারকার হাট বানিয়ে ফেলা ক্লাবটির সভাপতি ফ্লোরেন্তিনো পেরেস। 

ক্লাব ফুটবলে এই শতাব্দীর শুরু থেকেই সেরা তারকাদের দলে ভেড়ানোটা যেন নিয়মে পরিণত করে ফেলেছিলেন পেরেস। দুই দফায় সভাপতি হয়ে ক্লাবে এনেছেন ব্রাজিলের ‘দা ফেনোমেনন’ রোনালদো, লুই ফিগো, জিনেদিন জিদান, ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো, গ্যারেথ বেল, হামেস রদ্রিগেস ও এদেন আজারের মত তারকাদের। 

তবে গত কয়েক বছর ধরে সেভাবে বড় তারকা খেলোয়াড়দের দলে টানা থেকে বিরত আছে ইউরোপের সফলতম দলটি। গত বছর বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস মহামারীর প্রকোপ শুরুর পর থেকে অন্যান্য দলের মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতির মুখে পড়ে রিয়ালও। ফলে গত দুইটি গ্রীষ্মে ও একটি শীতকালীন দলবদলে নিরব উপস্থিতি ছিল স্পেনের দলটির।

ইতালিয়ান সংবাদমাধ্যম কোররিয়েরে দেল্লো স্পোর্তের সঙ্গে আলাপচারিতায় আনচেলত্তি বলেন, মহামারীর স্বত্বেও রিয়ালের সেরাদের সেরা হওয়ার লক্ষ্যে কোনো পরিবর্তন আসেনি।

"রিয়াল মাদ্রিদে সবকিছু একই এবং অপরিবর্তিত আছে।"

"একমাত্র যা পরিবর্তন হয়েছে তা হলো কোচ। একই ফিজিও, কর্মী, সাংবাদিক, আগের মতোই দৃষ্টিভঙ্গি ও সেরা হওয়ার সেই তীব্র আকাঙ্ক্ষা-মহামারীর কারণে হওয়া অর্থনৈতিক ক্ষতিতেও সেসব বদলে যায়নি।"

গত গ্রীষ্মের দলবদলের শেষ দিন পর্যন্ত পিএসজি ফরোয়ার্ড এমবাপেকে দলে ভেড়ানোর আপ্রাণ চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়েছিল রিয়াল। গুঞ্জন রয়েছে, আগামী বছর ফ্রি ট্রান্সফারে স্পেনের সফলতম দলটিতে যোগ দিবেন তিনি। গণমাধ্যমের খবর, এমবাপে ছাড়াও যোগ দিতে পারেন বরুশিয়া ডর্টমুন্ড ফরোয়ার্ড আর্লিং হলান্ডও।

এই দুজনকেই আগামী মৌসুমে রিয়ালে দেখা যাবে কি-না, এই প্রশ্নের জবাবে কৌশলী উত্তর দিলেন আনচেলত্তি। 

"এক বছরের মধ্যে, ২০২২ সালের ডিসেম্বরের শেষের আগে নতুন (সান্তিয়াগো) বের্নাবেউ প্রস্তুত হয়ে যাবে এবং ফ্লোরেন্তিনোর (পেরেস) গ্রীষ্মের দলবদলের জন্য বড় পরিকল্পনা রয়েছে।"

"ফ্লোরেন্তিনোর গুরুত্বপূর্ণ কিছু পরিকল্পনা আছে। এমবাপে ছাড়া (আর্লিং) হল্যান্ডকেও দলে আনা হবে কি-না? এ বিষয়ে পরে কথা বলা যাক।"

লা লিগায় ১৩ ম্যাচে ৩০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে আনচেলত্তির দল। রোববার ঘরের মাঠে রিয়ালের প্রতিপক্ষ সেভিয়া।