৫ মিনিটের ঝলকে ইউনাইটেডকে রুখে দিল অ্যাস্টন ভিলা

আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে লড়াই হলো জমজমাট। দুই গোলে এগিয়ে গিয়ে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ধরে রাখতে পারল না ব্যবধান। অ্যাস্টন ভিলার জার্সিতে অভিষেকে আলো ছড়ালেন ফিলিপে কৌতিনিয়ো। পাঁচ মিনিটের ঝড়ে রালফ রাংনিকের দলকে রুখে দিল স্টিভেন জেরার্ডের দল।

ভিলা পার্কে শনিবার রাতে প্রিমিয়ার লিগের রোমাঞ্চকর ম্যাচটি ২-২ গোলে ড্র হয়েছে। ব্রুনো ফের্নান্দেসের জোড়া গোলে ইউনাইটেড এগিয়ে যাওয়ার পর ব্যবধান কমান জ্যাকব র‍্যামজি। সমতা টানেন কৌতিনিয়ো।

পাঁচ দিন আগে এফএ কাপের তৃতীয় রাউন্ডে ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে দুই দলের লড়াইয়ে ১-০ গোলে জিতেছিল ইউনাইটেড। এবার সম্ভাবনা জাগিয়েও পারল না তারা।

লিগে টানা দুই ম্যাচে পয়েন্ট হারাল ম্যানচেস্টারের দলটি। গত রাউন্ডে ঘরের মাঠে উলভারহ্যাম্পটন ওয়ানডারার্সের বিপক্ষে হেরেছিল ১-০ গোলে।

আগের দিন রাংনিক বলেছিলেন, এই ম্যাচে ফিরবেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। কিন্তু শেষ পর্যন্ত স্কোয়াডে রাখা হয়নি পর্তুগিজ তারকাকে। এর কারণ ব্যাখ্যায় ম্যাচের আগে কোচ বলেন, ৩৬ বছর বয়সী ফরোয়ার্ডের নিতম্বে চোট আছে।

ষষ্ঠ মিনিটেই প্রতিপক্ষ গোলরক্ষকের ভুলে এগিয়ে যায় ইউনাইটেড। ফ্রি-কিকে আলেক্স তেলেস ছোট পাস দেন ফের্নান্দেসকে। পর্তুগিজ মিডফিল্ডারের শটে ডি-বক্সে এদিনসন কাভানি পা বাড়িয়ে দিলেও বল স্পর্শ করেনি, তবে এমিলিয়ানো মার্তিনেস মনঃসংযোগ হারিয়ে ফেলেন। আর্জেন্টাইন গোলরক্ষক তার সোজাসুজি বল ধরতে পারেননি, তার বুকে লেগে দুই পায়ের ফাঁক দিয়ে জড়ায় জালে।

অষ্টাদশ মিনিটে আরেকটি সুযোগ পায় সফরকারীরা। এবার ম্যাসন গ্রিনউডের শট ফিরিয়ে ব্যবধান বাড়তে দেননি মার্তিনেস। ৩৫তম মিনিটে কর্নারে আর্জেন্টাইন মিডফিল্ডার এমিলিয়ানো বুয়েন্দিয়ার জোরাল হেড ঠেকিয়ে জাল অক্ষত রাখেন ইউনাইটেড গোলরক্ষক দাভিদ দে হেয়া।

দ্বিতীয়ার্ধের দ্বিতীয় মিনিটে ভালো একটি সুযোগ পান কাভানি। ডি-বক্সে ঢুকে উরুগুয়ের স্ট্রাইকারের শট ঝাঁপিয়ে ঠেকান মার্তিনেস। পরক্ষণে র‍্যামজির শট ডান দিকে ঝাঁপিয়ে ফেরান দে হেয়া।

৬৭তম মিনিটে নিজের দ্বিতীয় গোলে ব্যবধান বাড়ান ফের্নান্দেস। ফ্রেদের পাস ধরে ডান পায়ের জোরাল শটে ঠিকানা খুঁজে নেন তিনি।

৭০তম মিনিটে বদলি নামেন বার্সেলোনা থেকে ধারে অ্যাস্টন ভিলায় আসা কৌতিনিয়ো। ছয় মিনিট পর দারুণ পাসিং ফুটবলে ব্যবধান কমায় স্বাগতিকরা। যেখানে অবদান আছে কৌতিনিয়োর। তার পাসে বল একজনের পা ছুঁয়ে পাওয়ার পর ডান পায়ের শটে গোলটি করেন র‍্যামজি।

৮২তম মিনিটে সমতায় ফেরা গোলে র‍্যামজি অবদান রাখেন। ইংলিশ মিডফিল্ডারের পাস দূরের পোস্টে পেয়ে ফাঁকা জালে পাঠান ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার কৌতিনিয়ো।

২০ ম্যাচে ৯ জয় ও ৫ ড্রয়ে ৩২ পয়েন্ট নিয়ে আগের মতো সপ্তম স্থানেই আছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। সমান ম্যাচে ২৩ পয়েন্ট নিয়ে ১৩তম স্থানে অ্যাস্টন ভিলা।

দিনের প্রথম ম্যাচে চেলসিকে ১-০ গোলে হারানো ম্যানচেস্টার সিটি ২২ ম্যাচে ৫৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে। সমান ম্যাচে ৪৩ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে চেলসি।

২০ ম্যাচে ৪২ পয়েন্ট নিয়ে তিন নম্বরে আছে লিভারপুল।