সিটির সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করবেন না গুয়ার্দিওলা

ম্যানচেস্টার সিটিতে পেপ গুয়ার্দিওলা আছেন লম্বা সময় ধরেই। গেঁথেছেন বেশ কিছু সাফল্যের মালা। ক্লাবের মালিক ও সমর্থকদের সঙ্গেও তার সম্পর্কটা দারুণ। নিজের ভবিষ্যৎ নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময় তাই সতর্ক থাকতে চান এই স্প্যানিয়ার্ড। বললেন, কোনোভাবেই প্রিমিয়ার লিগের দলটির সঙ্গে ‘বিশ্বাসঘাতকতা’ করবেন না তিনি।

২০১৬ সালে দায়িত্ব নেওয়া গুয়ার্দিওলার সঙ্গে সিটির চুক্তি রয়েছে ২০২২-২৩ মৌসুমের শেষ পর্যন্ত।

গুয়ার্দিওলার কোচিংয়ে সিটি তিনটি প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা ছাড়াও চারটি লিগ কাপ ও একটি এফএ কাপ জিতেছে৷

লিগে শনিবার সাউথ্যাম্পটনের বিপক্ষে ম্যাচের আগে সংবাদ সম্মেলনে গুয়ার্দিওলাকে প্রশ্ন করা হয় সিটিতে তার ভবিষ্যৎ নিয়ে। বার্সেলোনার সাবেক কোচ জানান, এ ব্যাপারে এখনই কিছু ভাবছেন না তিনি।

“দূর ভবিষ্যত ভাবায় আমি পটু নই। আমার ভবিষ্যৎ সবসময় ফলাফলের ওপর নির্ভর করে। তাই সাউথ্যাম্পটনের বিপক্ষে খেলব, তারপর একটু বিশ্রাম নেব এবং মৌসুম শেষে আমরা দেখব কি হয়।”

“তারা আমাকে সবকিছু দিয়েছে, তাই আমি তাদের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করতে বা তাদের সঙ্গে ভুল কিছু করতে পারি না।”

সিটিতেই থেকে যাবেন নাকি চুক্তি শেষে ক্লাব ছাড়বেন, তা নিয়ে এখনও নিশ্চিত নন গুয়ার্দিওলা। আপাতত নিজের কাজটা উপভোগ করার দিকে মনোনিবেশ করতে চান ৫১ বছর বয়সী এই কোচ।

“আলোচনা করে আমরা এখানে একত্রিত হয়েছিলাম এবং চুক্তির মেয়াদ দুইবার বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম এবং এটি এখনও একই রকম হবে। এটা নির্ভর করে তারা আমার সম্পর্কে কেমন অনুভব করে এবং ক্লাবে আমি নিজেকে কেমন অনুভব করি।”

“আমি ভালো ও স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করছি। যখন আমি উদ্যমী নই এবং একটু অবসাদগ্রস্ত বা ক্লান্ত বোধ করি, আমি নিশ্চিত যে, আমি (সিটির দায়িত্ব) ছেড়ে দেব, কিন্তু এই মুহূর্তে আমি ভালো অনুভব করছি।”

লিগে ২২ ম্যাচে ১৮ জয় ও দুই ড্রয়ে শীর্ষে আছে গুয়ার্দিওলার দল।