১৫ দিনে ৫ ম্যাচের জন্য ইতালির বিশাল বহর

ক্লাব ফুটবলের ইউরোপীয় মৌসুম শেষ হতেই শুরু হতে যাচ্ছে ঠাসা সূচির আন্তর্জাতিক ফুটবল। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ব্যস্ত থাকবে ইতালি। ১৫ দিনের মধ্যে পাঁচটি ম্যাচ খেলবে তারা। এজন্য ৩৯ সদস্যের বিশাল দল ঘোষণা করেছেন কোচ রবের্তো মানচিনি।

মাঝে লম্বা বিরতি দিয়ে এবার আবারও ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপ ও কোপা আমেরিকার শিরোপা জয়ী দলের মধ্যে ম্যাচ হতে যাচ্ছে। লন্ডনের ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে আগামী ১ জুন ‘ফিনালিস্সিমা’ নামের ম্যাচটিতে আর্জেন্টিনার মুখোমুখি হবে ইতালি।

পরের দুই সপ্তাহে উয়েফা নেশন্স লিগে চারটি ম্যাচ খেলবে তারা। ম্যাচগুলোর জন্য মঙ্গলবার ঘোষিত ইতালি দলে ফিরেছেন লিওনার্দো স্পিনাস্সোলা। গত বছরে ইউরোয় ইতালির অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পথে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ছিল এই ডিফেন্ডারের।

টুর্নামেন্টের শেষ পর্যন্ত যদিও খেলতে পারেননি তিনি। কোয়ার্টার-ফাইনালে বেলজিয়ামের বিপক্ষে ২-১ গোলের জয়ের ম্যাচে অ্যাকিলিস টেন্ডনে চোট পেয়ে কয়েক মাসের জন্য ছিটকে পড়েন রোমার এই লেফট-ব্যাক। প্রায় পুরো মৌসুমে বাইরে থাকার পর এই মাসেই ক্লাবের হয়ে মাঠে নামেন তিনি।

ইউরো জয়ী দলের প্রায় সবাই আছেন স্কোয়াডে। চোটের কারণে নেই ফেদেরিকো চিয়েসা, গায়েতানো কাস্ত্রোভিল্লি, রাফায়েল তোলোই ও চিরো ইম্মোবিলে।

গত মার্চের শেষ দিকে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের প্লে-অফে নর্থ মেসিডোনিয়ার বিপক্ষে হেরে কাতার বিশ্বকাপে খেলার স্বপ্ন শেষ হয়ে যায় ইতালির। এর কদিন পর প্রীতি ম্যাচে তুরস্কের বিপক্ষে জিতেছিল তারা।

অনেক বড় ওই ব্যর্থতার পর আর্জেন্টিনা ম্যাচ দিয়েই প্রতিযোগিতামূলক ফুটবলে ফিরতে যাচ্ছে ইতালি। এরপরই তারা শুরু করবে নেশন্স লিগ অভিযান।

আসরে নিজেদের প্রথম ম্যাচে আগামী ৪ জুন ঘরের মাঠে জার্মানির বিপক্ষে খেলবে মানচিনির দল। তিন দিন পর হাঙ্গেরির বিপক্ষেও তারা খেলবে নিজেদের আঙিনায়। তারপর ১১ জুন খেলবে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে, উলভারহ্যাম্পটনে। আর ১৪ জুন, জার্মানির বিপক্ষে ফিরতে লেগে মাঠে নামবে ইতালি।