ডিএসইতে তিন মাসের মধ্যে বেশি লেনদেন

সপ্তাহের তৃতীয় দিন মঙ্গলবার লেনদেন এবং সূচক বেড়েছে বাংলাদেশের দুই পুঁজিবাজারে।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে ‘সর্বাত্মক লকডাউন’ শুরুর পর মঙ্গলবার ছিল চতুর্থ লেনদেন আর এই চারদিনই সূচক বেড়েছে।

সোমবার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিন থেকে ৭১ দশমিক ৮৭ পয়েন্ট বা ১ দশমিক ৩৪ শতাংশ বেড়ে ৫ হাজার ৪২১ দশমিক ৭৮ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

মঙ্গলবার ঢাকায় এক হাজার ২৯৯ কোটি ৮৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।আগের কর্মদিবসে হাতবদল হয়েছিল ৬৬৭ কোটি ২৯ লাখ টাকার শেয়ার।

মঙ্গলবারের এই লেনদেন গত তিন মাসের মধ্যে সবচেয়ে বেশি। এর আগে এর চেয়ে বেশি লেনদেন ছিল গত ২০ জানুয়ারি। সেদিন লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ৪১৬ কোটি টাকার শেয়ার।

ডিএসইতে মঙ্গলবার লেনদেন হয়েছে ৩৫৪টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৯৩টির, কমেছে ৯৮টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৬৩টির দর।

ঢাকার অন্য দুই সূচকের মধ্যে ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ১৭ দশমিক ৩৪ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১ হাজার ২৩৩ দশমিক ৫৩ পয়েন্টে। আর ডিএস৩০ সূচক ৩৬ দশমিক ১২ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ২ হাজার ৮২ দশমিক ৮১ পয়েন্টে।

ঢাকার পুঁজিবাজারে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হওয়া ১০টি শেয়ার হচ্ছে- বেক্সিমকো লিঃ, বেক্সিমকো ফার্মা, লংকাবাংলা ফাইন্যান্স, রবি অজিয়াটা, বিডি ফাইন্যান্স, বিএটিবিসি, লাফার্জহোলসিম, এশিয়া প্যাসিফিক জেঃ ইন্সুরেন্স, ইস্টার্ন ইন্সুরেন্স ও স্কয়ার ফার্মা।

দাম বাড়ার তালিকায় শীর্ষ ১০টি শেয়ার হলো- ইস্টার্ন ইন্সুরেন্স, মিরাকল ইন্ডাস্ট্রিজ, আনোয়ার গ্যালভানাইজিং, গোল্ডেন সন, শাইনপুকুর সিরামিক্স, হাইডেলবার্গ সিমেন্ট, উত্তরা ফাইন্যান্স, মাইডাস ফাইন্যান্স, ম্যাকসন্স স্পিনিং ও আনলিমা ইয়ার্ন।

আর ঢাকার পুঁজিবাজারে দাম কমার তালিকার শীর্ষ ১০ শেয়ার প্রভাতী ইন্সুরেন্স, কন্টিনেন্টাল ইন্সুরেন্স, সেন্ট্রাল ইন্সুরেন্স, ক্রিস্টাল ইন্সুরেন্স, সোনার বাংলা ইন্সুরেন্স, প্রাইম ইন্সুরেন্স, ইসলামী ইন্সুরেন্স, এক্সপ্রেস ইন্সুরেন্স, নিটল ইন্সুরেন্স ও গ্লোবাল ইন্সুরেন্স। 

অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) প্রধান সূচক সিএএসপিআই ২১৪ দশমিক ৪০ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১৫ হাজার ৬৮৫ দশমিক ৪৭ পয়েন্টে।

সিএসইতে মঙ্গলবার ৭১ কোটি ৪৯ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আগের লেনদেন হয়েছে ৩৪ কোটি ৫২ লাখ টাকা।

এই বাজারে লেনদেন হয়েছে ২৩৭টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৭৬টির, কমেছে ২৮টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৪টির দর।