২৯৭ শেয়ারের দরপতনে ৫ দিন পর কমল সূচক

বড় মূলধনি কোম্পানির শেয়ারের দরবৃদ্ধিতে ভর করে বাড়তে থাকা প্রধান পুঁজিবাজার ডিএসইর প্রধান সূচকের টানা পাঁচ দিনের উত্থান অবশেষে থেমেছে।

আগের কয়েকদিনের প্রবণতায় সপ্তাহের দ্বিতীয় দিন সোমবারও বেশ কয়েকটি বড় মূলধনি কোম্পানির শেয়ারের দরবৃদ্ধির বিপরীতে দাম কমেছে বেশির ভাগের।

এদিনও বড় মূলধনি কোম্পানির শেয়ারের উল্লেখযোগ্য পরিমাণ দাম বাড়ায় দিনের বড় অংশজুড়েই সূচক ছিল ঊর্ধ্বমুখী। তবে শেষ আধা ঘণ্টায় বেশির ভাগের দর কমার পরিমাণ বাড়তে থাকলে শেষ পর্যন্ত সূচক কমে যায়।

বড় মূলধনি কিছু শেয়ারসহ ৪৮টি ছাড়া দিন শেষে ২৯৭ শেয়ারের দাম কমেছে। এত বেশি সংখ্যকের দাম কমার কারণে আগের কয়েকদিনের সূচকের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা আর বজায় থাকেনি।

ফলে প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিন থেকে ২৮ দশমিক ৫০ পয়েন্ট বা দশমিক ৩৯ শতাংশ কমে ৭ হাজার ৩২৭ দশমিক ৫৪ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

টানা পাঁচ দিনে ১১৯ পয়েন্ট সূচক বাড়ার পর এদিন কমল ডিএসই সূচক। রোববার দিন শেষে সূচকের অবস্থান ছিল ৭ হাজার ৩৫৬ দশমিক শূন্য ৪ পয়েন্টে।

এদিন চট্টগ্রামের পুঁজিবাজার সিএসইতেও সূচক কমেছে। এ বাজারের প্রধান সূচক সিএএসপিআই ৩৬ দশমিক ৯৫ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ২১ হাজার ৪৭৩ দশমিক ১৫ পয়েন্টে।

  সোমবার সূচক কমলেও লেনদেন বেড়েছে ঢাকার পুঁজিবাজারে। এ বাজারে আগের দিনের তুলনায় ১২ দশমিক ৯৫ শতাংশ বা ৩১৫ কোটি ৯৬ লাখ টাকা বেড়ে ২ হাজার ৭৫৫ কোটি ২১ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। আগের কর্মদিবসে যা ছিল ২ হাজার ৪৩৯ কোটি ২৫ লাখ টাকা।

এদিন ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩৭৬টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিটের মধ্যে দর বেড়েছে ৪৮টির এবং কমেছে ২৯৭টির। অপরিবর্তিত রয়েছে ৩১টির দর।

ঢাকার অন্য দুই সূচকের মধ্যে ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক দশমিক ২৩ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১ হাজার ৫৯৩ দশমিক ৭৫ পয়েন্টে।

ডিএস৩০ সূচক ২৩ দশমিক ৫৫ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ২ হাজার ৭৬৫ দশমিক ২৭ পয়েন্টে।

লেনদেনের শীর্ষ ১০টি কোম্পানি

বেক্সিমকো লিঃ, লাফার্জহোলসিম, অরিয়ন ফার্মা, বেক্সিমকো ফার্মা, লঙ্কাবাংলা ফাইন্যান্স, ব্রিটিশ আমেরিকান টোবাকো বাংলাদেশ, ইফাদ অটোস, জিপিএইচ ইস্পাত, শাইনপুকুর সিরামিক্স ও পাওয়ার গ্রিড।

দাম বাড়ার শীর্ষ ১০টি কোম্পানি

ওরয়িন ইনফউিশন, শাইনপুকুর সিরামিক্স, সি র্পাল, লার্ফাজহোলসিম, সোনালী পেপার, অ্যাকটিভ ফাইন, আলিফ ইন্ড্রাস্ট্রিজ, বিকন ফার্মা, অ্যাডভেন্ট র্ফামা ও আইসিবি।

সবচেয়ে বেশি দর হারানো ১০টি কোম্পানি

সুহৃদ ইন্ড্রাস্ট্রিজ, আইসিবি ইসলামিক ব্যাংক, মিথুন নিটিং, জিবিবি পাওয়ার, ড্রাগন সোয়টার, অলটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজ, সানলাইফ ইন্স্যুরেন্স, মাইডাস ফাইন্যান্স, মেট্রো স্পিনিং ও রিজেন্ট টেক্সটাইল।

সোমবার সিএসইতে ৩২২টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ড কেনাবেচা হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৬৬টির, কমেছে ২৩৮টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৮টির দর।

সূচক কমলেও এ বাজারে লেনদেন আগের দিনের তুলনায় ৪৫ দশমিক ৮৯ শতাংশ বা ৩৬ কোটি ২৯ লাখ টাকা বেড়েছে।

এদিন মোট ১১৫ কোটি ৩৫ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে, যা আগের দিন ছিল ৭৯ কোটি ৭ লাখ টাকা।