সূচক কমে সপ্তাহ শেষ

সপ্তাহের শেষ দিন বৃহস্পতিবার সূচক ও লেনদেন কমেছে বাংলাদেশের পুঁজিবাজারে।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক ডিএসইএক্স দিন শেষে আগের দিন থেকে ৮ দশমিক শূন্য ৭ পয়েন্ট বা দশমিক ১১ শতাংশ কমে ৭ হাজার ৩৪২ দশমিক ৯৭ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

পুরো সপ্তাহে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে সূচক বেড়েছে ১৪ পয়েন্ট।

বৃহস্পতিবার সূচকের সাথে সাথে লেনদেনের পরিমাণ কমেছে ঢাকার পুঁজিবাজারে; আগের দিনের চেয়ে ৬ দশমিক ৮৬ শতাংশ বা ১৮৪ কোটি ৬ লাখ টাকা কমেছে।

ঢাকায় এদিন ২ হাজার ৪৯৭ কোটি ২১ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়, যা আগের কর্মদিবসে ছিল ২ হাজার ৬৮১ কোটি ২৬ লাখ টাকা।

বৃহস্পতিবার ডিএসইতে ৩১ শতাংশ কোম্পানির দাম কেমছে। এর বিপরীতে ৫৮ শতাংশের দাম বেড়েছে এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১০ শতাংশ কোম্পানির শেয়ারের দাম।

টানা ১০ কাযদিবস বেশির ভাগ শেয়ারের দর কমার পরে বৃহস্পতিবার বাড়ল বেশির ভাগ শেয়ারের দাম।

বৃহস্পতিবার এ বাজারে লেনদেন হয়েছে ৩৭৩টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এর মধ্যে দর বেড়েছে ২১৮টির এবং কমেছে ১১৭টির। অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৮টির দর।

ঢাকার অন্য দুই সূচকের মধ্যে ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ৪ দশমিক ৪৭ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১ হাজার ৫৯৫ দশমিক ৭৯ পয়েন্টে।

ডিএস৩০ সূচক ২০ দশমিক ৪৩ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ২ হাজার ৭৬৭ দশমিক ৩৯ পয়েন্টে।

লেনদেনের শীর্ষ ১০ টি কোম্পানি

লাফার্জ, ওরিয়ন ফার্মা, পাওয়ার গ্রিড, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল, বেক্সিমকো, জিপিএইচ, সামিট পাওয়ার, বেক্সিমকো ফার্মা, এসএস স্টিল এবং এডভেন্ট ফার্মা।

দাম বাড়ার তালিকায় শীর্ষ ১০টি কোম্পানি

ইন্দো বাংলা ফার্মাসিউটিক্যালস, রবি, শেফার্ড ইন্ডাস্ট্রিজ, সোনার বাংলা ইন্স্যুরেন্স, এসএস স্টিল, সাফকো স্পিনিং, সেন্ট্রাল ফার্মাসিউটিক্যাল, রুপালী ব্যাংক, মন্নু সিরামিক এবং দেশ বন্ধু।

সবচেয়ে বেশি দর হারানো ১০ টি কোম্পানি

মেঘনা লাইফ, এইচ. আর টেক্সটাইল, তমিজউদ্দিন টেক্সটাইল, তমিজউদ্দিন টেক্সটাইল, শাইনপুকুর সিরামিকস লিমিটেড, দেশ গার্মেন্টস, লাফার্জ, আইসিবি ইসলামিক ব্যাংক লিমিটেড, ওরিয়ন ইনফিউশন এবং ডরিন পাওয়ার।

এদিন চট্টগ্রামের পুঁজিবাজারেও সূচক এবং লেনদেন কমেছে। 

এই বাজারের প্রধান সূচক সিএএসপিআই ৭৯ দশমিক ২৭ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ২১ হাজার ৪৪১ দশমিক ৩২ পয়েন্টে।

বৃহস্পতিবার এই বাজারে লেনদেন আগের দিনের তুলনায় ৭ দশমিক ৭৪ শতাংশ বা ৮ কোটি ৯৯ লাখ টাকা কমেছে।

এদিন মোট ১০৭ কোটি ১৫ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে, যা আগের দিন ছিল ১১৬ কোটি ১৪ লাখ টাকা।

সিএসইতে ৩১২টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ড কেনাবেচা হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৫৭টির, কমেছে ১৩১টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৪টির দর।