ডিএসইতে এক মাসের মধ্যে বড় পতন

টানা তৃতীয় দিনের মতো সপ্তাহের চতুর্থ দিন বুধবার সূচক কমেছে দেশের দুই পুঁজিবাজারে।

দিন শেষে প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিন থেকে ৬৫ দশমিক ৫৪ পয়েন্ট বা দশমিক ৯০ শতাংশ কমে ৭ হাজার ২৪৮ দশমিক ৪৪ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

এ দরপতন গত এক মাসের মধ্যে বেশি। এর আগে এর চেয়ে বেশি পতন হয়েছিল ১৪ সেপ্টেম্বর। সেদিন ডিএসইর প্রধান এ সূচক কমেছিল ৭৭ দশমিক ৫৫ পয়েন্ট বা ১ দশমিক শূন্য ৭ শতাংশ।

সোম থেকে বুধবার পর্যন্ত তিন দিনে এ নিয়ে সূচক কমলো ১২০ পয়েন্ট। তবে সপ্তাহটা শুরু হয়েছিল সূচকের বৃদ্ধি দিয়েই। গত রোববার ডিএসইএক্স বেড়েছিল ২৫ পয়েন্ট।

দেশের দ্বিতীয় পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) সূচক কমেছে। এ বাজারের প্রধান সূচক সিএএসপিআই ১৭৬ দশমিক ৯৬ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ২১ হাজার ১৮৩ দশমিক ৮৮ পয়েন্টে।

বুধবার ডিএসইতে সূচক কমলেও লেনদেন সামান্য বেড়েছে। দেশের প্রধান এ বাজারে লেনদেন আগের দিনের তুলনায় ৮৯ কোটি ১৯ লাখ টাকা বেড়ে এক হাজার ৯৫২ কোটি ৯৯ লাখ টাকার শেয়ার হাতবদল হয়, যা আগের কর্মদিবসে ছিল এক হাজার ৮৬৩ কোটি ৮০ লাখ টাকা।

এ নিয়ে সপ্তাহের চার দিনেই দুই হাজার কোটি টাকার নিচে লেনদেন হল এ বাজারে।

এদিন ৩৭৬টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিটের মধ্যে দর বেড়েছে ১০৬টির ও কমেছে ২৪১টির। অপরিবর্তিত রয়েছে ২৯টির দর। শতকরা হিসাবে  ৬৪ শতাংশ কোম্পানির শেয়ারের দর কমেছে। এর বিপরীতে ২৮ শতাংশের দাম বেড়েছে এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৮ শতাংশ কোম্পানির শেয়ারের দাম।

ঢাকার অন্য দুই সূচকের মধ্যে ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক  ২৪ দশমিক ৪৪ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১ হাজার ৫৬৬ দশমিক ৬০ পয়েন্টে।

ডিএস৩০ সূচক ৩২ দশমিক ৩১ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ২ হাজার ৭১৭ দশমিক ৫৭ পয়েন্টে।

লেনদেনের শীর্ষ ১০টি কোম্পানি

ফরচুন সুজ, লাফার্জহোলসিম, আইএফআইসি ব্যাংক, অরিয়ন ফার্মা, বেক্সিমকো লিঃ, ডেল্টা লাইফ ইন্স্যুরেন্স, বিএটিবিসি, জেনেক্স ইনফোসিস, সোনালী পেপার ও পাওয়ার গ্রিড।

দাম বাড়ার তালিকায় শীর্ষ ১০টি

এনআরবিসি ব্যাংক, ইস্টার্ন ইন্স্যুরেন্স, জনতা ইন্স্যুরেন্স, রিলায়েন্স ইন্স্যুরেন্স, গ্লোবাল ইন্স্যুরেন্স, নর্দান ইসলামী ইন্স্যুরেন্স,  ঢাকা ডাইং, জেনেক্স ইনফোসিস, প্রাইম ইন্স্যুরেন্স ও পূরবী জেনারেল ইন্স্যুরেন্স।

সবচেয়ে বেশি দর হারানো ১০টি কোম্পানি

ফার ইস্ট নিটিং, তুংহাই নিটিং, ইন্দো-বাংলা ফার্মা, লাফার্জহোলসিম, দেশ গার্মেন্টস, পাওয়ার গ্রিড, এসিআই ফর্মুলেশন, মেট্রো স্পিনিং, মতিন স্পিনিং ও এইচআর টেক্সটাইল।

এদিন সিএসইতে ৩১৫টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ড কেনাবেচা হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৮৯টির, কমেছে ২০৩টির ও অপরিবর্তিত রয়েছে ২৩টির দর।

বুধবার এ বাজারে সূচকের সঙ্গে লেনদেনও কমেছে। আগের দিনের তুলনায় ১ কোটি ৫৬ লাখ টাকা কমে মোট ৬১ কোটি ৫০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আগের দিন যা ছিল ৬৩ কোটি ৬ লাখ টাকা।