লাফার্জহোলসিমের মুনাফা বেড়েছে দ্বিগুণের বেশি

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত সিমেন্ট খাতের কোম্পানি লাফার্জহোলসিম চলতি বছরের প্রথম নয় মাসে আগের চেয়ে দ্বিগুণের বেশি মুনাফা প্রকাশ করেছে।

২০২১ সালের জুলাই-সেপ্টেম্বর মেয়াদের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদনের এতথ্য বৃহস্পতিবার সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে লাফার্জহোলসিম।

লাফার্জহোলসিম এই নয় মাসে অর্থাত্ জানুয়ারি-সেপ্টেম্বরে প্রতি শেয়ারে ২ টাকা ৬৬ পয়সা মুনাফা করেছে, যা আগের বছর ছিল প্রতি শেয়ারে ১ টাকা ২৯ পয়সা। অর্থাৎ শেয়ার প্রতি মুনাফা বেড়েছে ১০৬ শতাংশ।

এই নয় মাসে লাফার্জহোলসিম মোট মুনাফা দেখিয়েছে ৩০৮ কোটি ৯০ লাখ টাকা, যা আগের বছর ছিল ১৪৯ কোটি ৭০ লাখ।

তৃতীয় প্রান্তিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর) লাফার্জহোলসিম প্রতি শেয়ারে ৮১ পয়সা মুনাফা করেছে, যা আগের বছর ছিল প্রতি শেয়ারে ৫৬ পয়সা। এই তিন মাসে শেয়ার প্রতি মুনাফা বেড়েছে ৪৩ শতাংশ।

এই তিন মাসে লাফার্জহোলসিম মোট মুনাফা দেখিয়েছে ৯৩ কোটি ৭০ লাখ টাকা। আগের বছর এসময় তাদের মোট মুনাফা ছিল ৬৫ কোটি ৪০ লাখ।

লাফার্জহোলসিমের প্রধান নির্বাহি রাজেশ সুরানা বলেছেন, “ব্যয় সংকোচন ও সক্ষমতা বৃদ্ধির মাধ্যমে লাফার্জহোলসিম বাংলাদেশ আরও একটি দারুণ প্রান্তিক অতিক্রম করেছে। আমরা যে নতুন নতুন পণ্য বাজারে এনেছি, সেগুলো অত্যন্ত সফল এবং আমাদের গ্রাহকবৃন্দ আমাদের পণ্য ও সমাধান বৈচিত্রে আস্থা রেখেছেন।”

জুলাই থেকে সেপ্টেম্বর মাসে মোট বিক্রির পরিমাণ ছিল ৪৬০ কোটি ২০ লাখ টাকা, যা গত বছরের একই সময়ের তুলনায় ২৬ শতাংশ বেশি।

গত বছর একই সময়ে মোট বিক্রি ছিল ৩৬৫ কোটি ৫০ লাখ টাকা।

এই ফলাফল অর্জনে ডিজিটাল উদ্যোগ, পণ্য সরবরাহের নতুন নতুন চ্যানেল বাস্তবায়ন, সুপারক্রিট সিমেন্টের নতুন মোড়ক উন্মোচন এবং ব্যয় সংকোচন উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রেখেছে বলে জানানো হয়েছে।

২০০৩ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত এ কোম্পানির শেয়ার বর্তমানে লেনদেন হচ্ছে ‘এ’ ক্যাটাগরিতে।

২০২০ অর্থবছরে লাফার্জহোলসিম ২৩৬ কোটি ১৪ লাখ টাকা মুনাফা করেছিল; লভ্যাংশ দিয়েছিল শেয়ার ১ টাকা।