আস্থায় পিছিয়ে পুঁজিবাজার ও বীমা: ডিএসই চেয়ারম্যান

দেশের পুঁজিবাজার এবং বীমা খাত এখনও সাধারণের বিশ্বাস অর্জন করতে পারেনি বলে মনে করেন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) চেয়ারম্যান ইউনুসুর রহমান।

বুধবার দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ডিএসই আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

ডিএসই ভবনে এ সংবাদ সম্মেলনে দেশের প্রধান এ স্টক এক্সচেঞ্জকে কাগজবিহীন করতে একটি সফটওয়্যার চালুর বিষয়ে জানানো হয়। যুক্তরাষ্ট্রের একটি কোম্পানির কাছ থেকে ৪৭ লাখ টাকায় এ সফটওয়্যার কেনা হয়েছে।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সাবেক জ্যেষ্ঠ সচিব ইউনুসুর বলেন, “বিশেষ করে আমরা দুইটা জায়গায় খুব খারাপ অবস্থায় আছি। এর মধ্যে একটা হল পুঁজিবাজার, আরেকটি হচ্ছে বীমা খাত। এখনও সাধারণ মানুষের বিশ্বাস আমরা অর্জন করতে পারছি না।

“এখনও সাধারণ মানুষ মনে করে এ জায়গায় যারা থাকেন, তারা ভালো মানুষ না। তারা মানুষকে ঠকায়। এ ধরনের একটা ধারণা এখনও আমাদের সাধারণ মানুষের মধ্যে রয়েছে।”

এমন প্রেক্ষাপটে আস্থা অর্জনের ওপর গুরুত্বারোপ করে তিনি বলেন, “এই ধারণা আমাদের ভেঙে দিতে হবে। পুঁজিবাজার ও বীমা খাতকে এগিয়ে নিতে না পারলে টেকসই উন্নয়ন অনেক কঠিন হয়ে যাবে।

“তবে বর্তমান কমিশন খুব ভালো কাজ করছে; আশা করা যায়, আমরা আস্তে আস্তে উন্নতি করতে পারব।”

বাংলাদেশের পুঁজিবাজারকে আরও অনেক দূর যেতে হবে উল্লেখ করে ডিএসই চেয়ারম্যান বলেন, “পুঁজিবাজারে বিগত একবছরে অনেক উন্নতি হয়েছে। বাজার মূলধন শতকরা ৮০ ভাগ বেড়েছে, সেটা নিঃসন্দেহে অনেক বড় উন্নতি।

“কিন্তু ওভারঅল আমাদের পুঁজিবাজার নিয়ে গর্ব করার মতো জায়গায় নাই। এখন পর্যন্ত বাজার মূলধন আমাদের জিডিপির ২০ শতাংশের নিচে।”

ডিএসই চেয়ারম্যান বলেন,“ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ মাত্র শুরু করল, আরও অনেক দূর যেতে হবে। অনেক জানতে হবে, অনেক বুঝতে হবে। সত্যিকার অর্থে আমরা ডিএসইকে কাগজবিহীন করতে চাই। যদিও এ কাজে আসা উচিত ছিল আরও আগে।”

ডিএসইর পরিচালক শাকিল রিজভীর সভাপতিত্বে সংবাদ সম্মেলনে পরিচালক সালমা নাসরীন, ডিবিএর সভাপতি রিচার্ড ডি’ রোজারিও, বাংলাদেশ মার্চেন্ট ব্যাংকার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমবিএ) সভাপতি ছায়েদুর রহমান, বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক সাইফুর রহমান ও সিএমজিএফ সভাপতি জিয়াউর রহমান বক্তব্য দেন।

সংবাদ সম্মেলন পরিচালনা করেন ডিএসইর ব্যবস্থাপনা পরিচালক তারিক আমিন ভূঁইয়া।