ইতিবাচক খবরে সূচকে লাফ, ৮ দিন পর থামল পতন

মার্জিন ঋণের সীমা বাড়ানোর সিদ্ধান্তের পাশাপাশি অর্থ মন্ত্রণালয় পুঁজিবাজার সহায়ক বেশ কিছু সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে এমন খবরে টানা আট দিন দরপতনের পর ঊর্ধ্বমুখী হয়েছে দেশের দুই বাজারের সূচক।

সপ্তাহের দ্বিতীয় দিন সোমবার প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক ডিএসইএক্স এক লাফে বেড়েছে ১১৯ পয়েন্ট; শতকরা হিসাবে ১ দশমিক ৯৪ শতাংশ।

দেশের আরেক পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) প্রধান সূচক সিএএসপিআই ৩২২ দশমিক ২৯ পয়েন্ট বেড়ে হয়েছে ১৮ হাজার ৪০০ পয়েন্ট; শতকরা হিসাবে বেড়েছে ১ দশমিক ৭৮ শতাংশ।

বিশ্ববাজারে অস্থিরতা আর ডলারের দাম চড়ে যাওয়ার খবরে আতঙ্কের মধ্যে চলতি মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে পুঁজিবাজারে দরপতন শুরু হয়।

শেয়ার বিক্রির হিড়িকে সর্বশেষ আট লেনদেন দিবসে টানা পতন ঘটে সূচকে। এই আট দিনে ডিএসইএক্স সূচক হারায় ৫৫৫ দশমিক ৪০ পয়েন্ট বা ৮ দশমিক ২৯ শতাংশ।

এ পরিস্থিতিতে রোববার মার্জিন ঋণ নেওয়ার সীমা বাড়ানোর ঘোষণা দেয় বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)।

সেখানে মার্জিন ঋণের হার ১: ১ (এক টাকা বিনিয়োগের বিপরীতে এক টাকা ঋণ) করার নির্দেশনা দেয় বিএসইসি, যা আগে ১: দশমিক ৮০ (এক টাকার বিপরীতে ৮০ পয়সা) ছিল।

অপরদিকে একই দিন অর্থ মন্ত্রণালয়ে অর্থমন্ত্রী বৈঠক করেন গর্ভনর, অর্থ সচিব, এনবিআর চেয়ারম্যানসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের নিয়ে। এ বৈঠকে দেশের সার্বিক অর্থনৈতিক বিষয়ে সিদ্ধান্তের পাশাপাশি পুঁজিবাজার নিয়েও কিছু ইতিবাচক সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে খবর আসে সংবাদ মাধ্যমে।

এসব খবরে সোমবার দিনের শুরু থেকেই ঊর্ধ্বমুখী ছিল দেশের দুই পুঁজিবাজারের সূচক, যা দিন শেষেও বজায় ছিল। আবার ক্রেতা ফিরতে শুরু করলে ডিএসই সূচক সোমবার ১১৮ দশমিক ৮৬ পয়েন্ট বেড়ে হয়েছে ৬ হাজার ২৬১ দশমিক ৫৫ পয়েন্টে।

ঢাকার বাজারে এদিন ৬৫৮ কোটি ৯৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে আগের দিনের চেয়ে ৩ দশমিক ৪১ শতাংশ কম। রোববার এ বাজারে ৬৮২ কোটি ২১ লাখ টাকার শেয়ার হাতবদল হয়েছিল।

ডিএসইতে মোট ৩৭৬টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট হাতবদল হয়, এর মধ্যে ৩৪৩ টির দর বেড়েছে, ১৯টির কমেছে এবং ১৪টির দর অপরিবর্তিত রয়েছে।

ঢাকার অন্য দুই সূচকের মধ্যে ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ১৫ দশমিক ২৬ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৩৭৬ দশমিক ৯৯ পয়েন্ট হয়েছে।

আর ডিএস৩০ সূচক ৩২ দশমিক ৫৯ পয়েন্ট বেড়ে হয়েছে ২ হাজার ৩০৯ দশমিক ৭৫ পয়েন্ট।

পুঁজিবাজার সহায়তা তহবিলের মেয়াদ ও আকার বাড়ল  

দরপতন থামাতে মার্জিন ঋণের সীমা বাড়ল  

লেনদেনের শীর্ষ ১০

বেক্সিমকো লিঃ, শাইনপুকুর সিরামিক, জেএমআই হসপিটাল, বিএসসি, আইপিডিসি, স্কয়ার ফার্মা, এসিআই ফর্মুলেশন, ফরচুন সুজ, অরিয়ন ফার্মা ও বিডি ফুড।

দাম বাড়ার শীর্ষ ১০

এসআলম কোল্ডরোল্ড, মাইডাস ফাইন্যান্স, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল, ন্যাশনাল ফিড মিল, রতনপুর স্টিল, অ্যাপলো ইস্পাত, অ্যাম্বি ফার্মা, ফাইন ফুডস, শাইনপুকুর সিরামিক ও জেএমআই হসপিটাল।

দর হারানো শীর্ষ ১০

বঙ্গজ লিঃ, আরডি ফুড, ঢাকা ইন্স্যুরেন্স, ইন্টারন্যাশনাল লিজিং, বিএনআইসিএল, ডেল্টা লাইফ, এফএএস ফাইন্যান্স, শাহজালাল ইসলামি ব্যাংক, ফরচুন সুজ ও ডিবিএইচ ফার্স্ট মিঃ ফাঃ।

চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) এদিন সূচক ও লেনদেন বেড়েছে।

সোমবার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) বেশির ভাগ শেয়ারের দাম বাড়ে।

এ বাজারে ২৭৪টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ড কেনাবেচা হয়। এর মধ্যে ২০৭টির দর বেড়েছে, ৫১টির কমেছে এবং ১৬টির দর অপরিবর্তিত রয়েছে।

বেশিরভাগ শেয়ারের দাম বাড়ায় প্রধান সূচক সিএএসপিআই ৩২২ দশমিক ২৯ পয়েন্ট বেড়ে হয়েছে ১৮ হাজার ৪০০ পয়েন্ট।

সোমবার এ বাজারে লেনদেন আগের দিনের তুলনায় ৬ কোটি ৯৭ লাখ টাকা বেড়ে ২৪ কোটি ৯ লাখ টাকা হয়েছে। রোববার লেনদেন হয়েছিল ১৭ কোটি ৪ লাখ টাকার শেয়ার।